শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৫ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:১০

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

বাংলাদেশ প্রতিদিনসহ কয়েকটি জাতীয় দৈনিক ও আঞ্চলিক পত্রিকায় ২ এপ্রিল প্রকাশিত ‘ছাত্রলীগ কর্মীদের হুমকি, থানার ইট খুলে নেওয়া হবে’ শীর্ষক সংবাদটি মিথ্যা ও বানোয়াট বলে অভিহিত করেছেন কসবা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মনির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন। এক প্রতিবাদপত্রে তারা বলেন, প্রকৃত ঘটনা আড়াল করে একটি কুচক্রী মহল মিথ্যা তথ্য দিয়ে তাদের হীনস্বার্থ চরিতার্থ করতে এই সংবাদটি রচনা করেছে। প্রকৃত অর্থে ছাত্রলীগের এক ওয়ার্ড পর্যায়ের কর্মীর সঙ্গে কসবা রেলওয়ে স্টেশনে এক পুলিশ কনস্টেবলের ভুল বোঝাবুঝি নিরসনে আলোচনার জন্য ৩১ মার্চ আমরা থানায় যাই। সেখানে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ আলোচনা করি। তখন কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী উচ্চৈঃস্বরে কথা বলেন। এই বিষয়টিকে দলীয় একটি প্রতিপক্ষ অন্যদিকে প্রবাহিত করে আমাদের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। তারা আইনমন্ত্রী ও আমাদের প্রশ্নবিদ্ধ করে কসবা-আখাউড়া নির্বাচনী এলাকায় অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করতে চায়। এদের অতীতে এলাকাবাসী প্রত্যাখ্যান করেছেন। তাই তারা এখন প্রতিহিংসাকাতর। কসবা থানার ওসি মহিউদ্দিন এবং থানার কর্মকর্তাদের সঙ্গে আমাদের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। মাদক-সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের প্রতিটি সদস্য কসবা পুলিশের সঙ্গে একাত্ম। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কসবা শাখা সব সময়ই পুলিশের প্রতিটি ভালো কাজে অকুণ্ঠ সমর্থন দিয়ে আসছে।

সুতরাং পত্রিকাগুলোতে যে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে, তাতে তথ্য-উপাত্তের বিষয়গুলো হাস্যকর ও ভিত্তিহীন। এ ছাড়া এ সব বিষয়ে কোনো সাংবাদিক আমাদের সঙ্গে কথাও বলেননি। আমরা এ সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।


আপনার মন্তব্য