শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ মে, ২০১৯ ০২:১১

তিনজনকে ধর্ষণ

সেই পীর মনির রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক

ঢাকার আশুলিয়া এলাকায় একই পরিবারের মা, মেয়েসহ ৩ নারী ধর্ষণ মামলায় ভ  পীর মনির হোসেনকে ৫ দিন রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে আদালত। গতকাল ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী আশরাফুজ্জামান এ আদেশ দেন। এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার এসআই আবদুল জলিল আসামিকে আদালতে হাজির করে ৫ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন।রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, ঢাকার আশুলিয়ার আমতলা কুরগাঁও নতুনপাড়া এলাকার সূর্য্য ভিলার আ. রহিমের ছেলে মনির হোসেন নিজেকে পীর পরিচয় দিয়ে ১৪/১৫ বছর ধরে কৌশলে বিভিন্ন নারীকে আস্তানায় নিয়ে মুরিদ করে।

পরে আসামি নিজেকে খোদা দাবি করে তার ছবিতে মুরিদদের সিজদা করাত এবং তার প্রস্রাব খাওয়াত। আসামি মনির সর্বদাই ইসলামবিরোধী কর্মকা  শেখাত। এ ছাড়া বাদিনীর ভগ্নিপতি বিদেশ থাকার সুবাদে তার বোনকে আসামির দরবারে রেখে নিয়মিত ধর্ষণ করত। বাদিনীকে তার বোনের মাধ্যমে ৩/৪ বছর আগে কৌশলে রাজি করিয়ে মুরিদ করে এবং নিয়মিত ধর্ষণ করে। এ ছাড়া বাদিনীর বোনের নাবালক মেয়েকে ২৬ এপ্রিল আসামি মনির তার আস্তানায় নিয়ে জোড় করে ধর্ষণ করে। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে এ আসামিকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার আশুলিয়ার ভন্ড  পীর মনির হোসেন ধর্মের নানা অপব্যাখ্যা দিয়ে প্রতিনিয়ত ধর্ষণ করে আসছিল বিভিন্ন নারীকে। এমন ঘটনায় ভুক্তভোগী এক নারী বাদী হয়ে ভন্ড  পীর ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে ৬ মে আশুলিয়া থানায় মামলা করলে পুলিশ গ্রেফতার করে।


আপনার মন্তব্য