শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ নভেম্বর, ২০২০ ২৩:২৮

শরীয়তপুরে গৃহবধূকে ধর্ষণ হত্যায় তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

জেলার ডামুড্যা উপজেলার চরভয়রা উকিলপাড়া গ্রামের হাওয়া বেগম নামের এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় তিনজনকে মৃত্যুদ- দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে নয়জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। গতকাল শরীয়তপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবদুস ছালাম খান এ আদেশ দেন। এ ছাড়া দ-প্রাপ্তদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত  ছিলেন। ঘটনার ২২ মাস চার দিন পর এ রায় হয়। উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছে আসামিপক্ষ।

দ-প্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার মধ্য কোদালপুর গ্রামের মোর্শেদ উকিল (৫৬), ডামুড্যা উপজেলার চর ঘরোয়া গ্রামের আবদুল হক মুতাইত (৪২) ও দাইমী চরভয়রা গ্রামের জাকির হোসেন মুতাইত (৩৩)। রায় ঘোষণার পর তাদের কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। অভিযোগপত্রভুক্ত অন্য ৯ আসামি দোষী সাব্যস্ত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) ফিরোজ আহমেদ বলেন, ২০১৯ সালের ২০ জানুয়ারি রাত ৯টার দিকে ডামুড্যা উপজেলার চরভয়রা উকিলপাড়া গ্রামের খোকন উকিলের স্ত্রী হাওয়া বেগম (৪০) পাশের বাড়ি মোবাইল চার্জ দিতে গিয়ে আর ঘরে ফেরেননি। ওই রাতে মোর্শেদ, আবদুল হক ও জাকির একলা পেয়ে হাওয়া বেগমকে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ করেন। পরে আসামিরা মাথায় আঘাত ও শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করেন। পরদিন হাওয়া বেগমের স্বামী খোকন উকিল বাদী হয়ে ডামুড্যা থানায় হত্যা মামলা করেন।


আপনার মন্তব্য