শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জানুয়ারি, ২০২০ ১১:৪৭

নিউইয়র্ক ক্রিকেট লীগের পুরস্কার বিতরণে জমজমাট অনুষ্ঠান

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে

নিউইয়র্ক ক্রিকেট লীগের পুরস্কার বিতরণে জমজমাট অনুষ্ঠান
আয়োজক এবং অতিথিগণকে পাশে নিয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন ইঞ্জিনিয়ার সায়েম রহমান। ছবি-এনআরবি নিউজ।

দেশীয় আমেজে সুদূর এই প্রবাসেও নতুন প্রজন্মকে ক্রিকেটে জড়িয়ে রাখার মধ্য দিয়ে সুন্দর একটি কমিউনিটি বিনির্মাণের অভিপ্রায়ে ৫ বছর যাবত কর্মরত ‘নিউইয়র্ক বাংলাদেশি ক্রিকেট লীগ’ (এনওয়াইবিসিএল) এ বছরও টি-২০ এবং প্রিমিয়ার লীগ আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে। গত বছরের লিগে অংশগ্রহণকারী ২০ টিম থাকবে এবারও। আয়োজকরা আশা করছেন নতুন টিমের অন্তর্ভুক্তি ঘটতে পারে। 

রবিবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে এনওয়াইবিসিএল’র গত বছরের বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সংগঠনের প্রধান ওয়েস আহমেদ এসব ঘোষণা দেন। 

এ সময় এ সংগঠনের প্রতি বছরের খেলা আয়োজনে সার্বিক সহায়তা প্রদানকারী ‘ওজনপার্ক কোয়ালিটি কেয়ার মেডিকেল’র কর্ণধার ইঞ্জিনিয়ার সায়েম রহমান বলেছেন, ‘আমাদের প্রজন্ম যাতে শারীরিক এবং মানসিকভাবে প্রফুল্ল থাকে সে তাগিদে ক্রিকেটের বিকল্প নেই।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কমিউনিটি লিডার আলহাজ মাহফুজুল মাওলা নান্নু বলেন, ‘ক্রিকেট সম্পর্কে আমার তেমন আগ্রহ ছিল না। কিন্তু এই প্রবাসে আমাদের ছেলেরা যে উদ্যোগ নিয়েছে, যেভাবে পরিশ্রম করছে, তাকে পৃষ্টপোষকতা দেয়ার খাতিরেই আমি ক্রিকেটকে ভালবাসতে শিখেছি। এই সংগঠনের কর্মতৎপরতা আমাকে মুগ্ধ করেছে।’

অপর বিশেষ অতিথি যুবনেতা এম এ বাতিন বলেছেন, এনওয়াইবিসিএল গত বছর যাবত যে আয়োজন করেছে তা গোটা কমিউনিটিকেই আশ্বস্ত করেছে। অংশগ্রহণকারী টিমের সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি দর্শকের সংখ্যা বাড়ায় আয়োজকদের প্রতি মানুষের আস্থা বৃদ্ধি পাবার স্পষ্ট প্রমাণ।  এই সংস্থার সমস্ত কর্মকাণ্ডে ব্যক্তিগতভাবে আমার সমর্থন অব্যাহত থাকবে। 

অনুষ্ঠান চলাকালেই এনওয়াইবিসিএল’র ম্যানেজমেন্ট টিমের নতুন সদস্য হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয় মাজহারুল ইসলাম জনির নাম। গত সবকটি লীগ/টুর্নামেন্ট আয়োজনে নিরলসভাবে কাজের মধ্যদিয়ে জনি পুরো টিমের সেক্রেটারি হিসেবে পরিচিতি পাবেন। 

এ সময় গত বছরের রানার আপ ‘নিউইয়র্ক থান্ডার হক’র প্রধান এবং চট্টগ্রাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশরাব আলী খান লিটনও বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, সময়ের পরিক্রমায় প্রবাসীদের মাঝে বিশেষ এক স্থান করে নিয়েছে এনওয়াইবিসিএল। অতি সম্প্রতি আমেরিকাস্থ ‘বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল’র  নতুন কমিটি হয়েছে। সেখানে সভাপতি হচ্ছেন- মিসবাহ আবদিন। আমি নিজে যুগ্ম সম্পাদক। সে আলোকে এনওয়াইবিসিএল’র কার্যক্রমকে আরও ব্যাপকতা দেয়া যাবে সকলের আন্তরিক প্রয়াস অব্যাহত থাকবে। 

এ সময় কোনো কোনো বক্তা অভিযোগ করেন যে, ‘কমিউনিটির অনেক রাজনীতিক/ব্যবসায়ী গলা ফাটান নতুন প্রজন্মের উজ্জ্বল সম্ভাবনার দিগন্ত প্রসারিত করতে। সে আহ্বানে সাড়া দিয়ে গত কয়েক বছরে এই ক্রিকেট লীগ আয়োজনে তাদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু একজনও সাড়া দেননি। এমন আচরণ কাম্য ছিল না। তারপরও আমরা হাল ছাড়িনি। সায়েম রহমান, এম এ বাতিন, নান্নুর মত হৃদয়বান মানুষের সাহচর্যে ক্রিকেট এগিয়ে চলছে।’ ক্রিকেটের এই সরগরম অবস্থাকে মূলধারায় নিতে যেতে চান আয়োজকরা। 

উল্লেখ্য, নিউইয়র্ক সিটি এবং স্টেট প্রশাসনেও ক্রীড়াঙ্গনের উৎকর্ষ সাধনে তহবিল-সহায়তা রয়েছে। সে সবের সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টরা এখন পর্যন্ত এগিয়ে আসেননি বলে জানা গেছে। 

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী সকল টিমের কর্মকর্তা এবং খেলোয়াড়রা ছিলেন। উৎসবের আমেজে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিরা। এ সময় এনওয়াইবিসিএল’র প্রেসিডেন্ট ওয়েস আহমেদ জানান যে ফেব্রুয়ারি অথবা মার্চে বৈঠকে বসে এ বছরের লীগ আয়োজনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য