শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২১ জুন, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ জুন, ২০২০ ২৩:৩৬

সেভিয়ায় আটকালো বার্সা

ক্রীড়া ডেস্ক

সেভিয়ায় আটকালো বার্সা
Google News

নতুন উচ্চতায় উঠার সুবর্ণ সুযোগ ছিল লিওনেল মেসির। পাঁচবারের বিশ্বসেরা ফুটবলার মাত্র একটি গোল করলেই ৭০০ স্বীকৃত গোলের রেকর্ড গড়তেন। কিন্তু পারেননি। ব্যর্থ হয়েছেন সেভিয়ার রক্ষণব্যুহ ভাঙতে। শুধু মেসিই নন, গোটা বার্সেলোনা ফুটবল দলই গোলের দেখা পায়নি। ফলে লা লিগার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সেভিয়ার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে মেসির বার্সেলোনা। ড্র করে ২ পয়েন্ট হারানো কিকে সেটিয়েনের বার্সেলোনার পয়েন্ট ৩০ ম্যাচে ৬৫। এক ম্যাচ কম খেলে চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৬২। আজ রিয়াল সোসিদাদের বিপক্ষে জিতলেই পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠার সম্ভাবনা উজ্জল জিনেদিন জিদানের রিয়ালের। তবে ম্যাচটি নিদেন পক্ষে জিততে হবে তিন গোলের ব্যবধানে। তিনে থাকা সেভিয়ার পয়েন্ট ৩০ ম্যাচে ৫২। ম্যাচটি জিততে না পারলেও ভালো খেলেছে স্বাগতিক সেভিয়া। ড্রয়ের ফলে বার্সার রক্ষণভাগের জেরার্ড মনে করছেন, শিরোপা জেতা কঠিন হবে বার্সেলোনার।

করোনাভাইরাসে আড়াইমাসের উপর বন্ধ ছিল লা লিগা। শুরুর পর রুগানেসের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় শুভ সূচনা করে করোনা পরবর্তী লা লিগায়। কিন্তু পরশু রাতে হোঁচট খায় অ্যাওয়ে মাঠে। খেলায় একচেটিয়া না হলেও আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছে সেভিয়া। ১২ মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় সেভিয়া। জল কুইন্দির শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ২১ মিনিটের দুরন্ত ফ্রি কিক পরাস্ত করতে পারেনি সেভিয়ার রক্ষণভাগ। ২৫ মিনিটে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন বার্সেলোনার মার্টিন ব্রেথওয়েট। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য। দ্বিতীয়ার্ধে দুই দলই গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে। ৫৫ মিনিটে সেভিয়ার নিশ্চিত গোল রক্ষা করেন বার্সার মার্ক অ্যান্ড্রে টের স্টেগেন। ৫৭ মিনিটে ফের বেঁচে যায় বার্সা। অথচ দুটিই আক্রমণ থেকে গোল পেতে পারত সেভিয়া। ম্যাচ যখন শেষের দিকে, তখন একটি সুযোগ সৃষ্টি করে মেসিরা। ডি বক্সে দাঁড়ানো লুইস সুয়ারেজ মিস করেন তাড়াহুড়া করতে যেয়ে। ২০১১ সালের পর এই প্রথম বার্সেলোনা-সেভিয়া ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হয়েছে।

 সেভিয়ার বিপক্ষে জিততে না পারায় হতাশ দলটির তারকা ডিফেন্ডার পিকে। তিনি মনে করেন, লিগ শিরোপা জেতা এখন অনেক কঠিন হয়ে গেছে দলের জন্য। যদিও লিগের শিরোপা জিততে শেষ পর্যন্ত লড়াই করবে। এখনো ম্যাচ বাকি রয়েছে ৮টি। পরশু রাতে ড্রয়ের পর পিকে বলেন, ‘ম্যাচটি বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়েছে। আমরা বাজে খেলিনি। তবে আমরা দুই পয়েন্ট হারিয়েছি, এটাই সত্যি।