Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:২১

ম্যানসিটির দুই হালি গোলের জয়ে যত রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক

ম্যানসিটির দুই হালি গোলের জয়ে যত রেকর্ড

প্রথম ১৮ মিনিটের মধ্যেই পাঁচ গোল, ম্যাচ শেষে সংখ্যাটা গিয়ে ঠেকল আটে। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে যেন গোলের বন্যা বইয়ে দিল ম্যানচেস্টার সিটি!

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে শনিবার নিজেদের মাঠে ওয়ার্টফোর্ডকে ৮-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। বার্নার্দো সিলভা করেছেন হ্যাটট্রিক। একটি করে গোল করেছেন পাঁচজন।

লিগে আগের ম্যাচে নরউইচ সিটির কাছে অবিশ্বাস্যভাবে হেরেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। পেপ গার্দিওলার দল সেই ধাক্কা সামলে ওঠে চ্যাম্পিয়নস লিগে শাখতার দোনেৎস্ককে হারিয়ে। এবার ওয়ার্টফোর্ডকে দুই হালি গোল দিয়ে মনে করিয়ে দিল আক্রমণে তারা কতটা ভয়ংকর।

ম্যাচের প্রথম মিনিটেই সিটিকে লিড এনে দিয়েছিলেন ডেভিড সিলভা। সপ্তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সার্জিও আগুয়েরো। দ্বাদশ মিনিটে স্কোরশিটে নাম লেখান রিয়াদ মাহরেজ।

১৫ মিনিটে বার্নার্দো সিলভা করেন নিজের দ্বিতীয় আর দলের চতুর্থ গোল। দুই মিনিট পরই স্কোরলাইন ৫-০ করে ফেলেন আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওটামেন্ডি।


বিরতির পর বার্নার্দো সিলভা আরো দুইবার ওয়ার্টফোর্ডের জালে বল পাঠিয়ে পূর্ণ করেন হ্যাটট্রিক। আর শেষ দিকে অতিথিদের জালে আট নম্বর পেরেক ঠুকে দেন কেভিন ডি ব্রুইন।

প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার সিটির সবচেয়ে বড় জয় এটিই। ১৯৯২ সালে প্রিমিয়ার লিগ নামকরণের পর সবচেয়ে বড় জয়ের রেকর্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দখলে। ১৯৯৫ সালে তারা ইপ্সাউইচের বিপক্ষে জিতেছিল ৯-০ গোলে। 

ইউনাইটেডের রেকর্ডটা শনিবার ভেঙেই যেতে পারত। সিটি শুধু ৮-০ নয়, ১০, ১১ কিংবা ১২ গোলেও জিততে পারত! আগুয়েরো পেনাল্টি থেকে গোল করলেও অন্তত তিনটি সুযোগ নষ্ট করেছেন। যার একটি লেগেছে পোষ্টে। বল বারে মেরেছেন মাহরেজও। শেষ দিকে একটি সুযোগ নষ্ট করেছেন ডি ব্রুইন।

নগরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের রেকর্ড ভাঙতে না পারলেও প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে দ্রুততম সময়ে (১৮ মিনিট) পাঁচ গোল এবং প্রথমার্ধে সবচেয়ে বড় লিডের (৫-০) রেকর্ড এখন সিটির।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য