শিরোনাম
প্রকাশ : ২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৭:২২
প্রিন্ট করুন printer

সোনারগাঁ পৌর নির্বাচন : প্রার্থী দৌড়ে নতুন মুখ ছগীর আহম্মেদ

মো. আল আমিন, সোনারগাঁ প্রতিনিধি :

সোনারগাঁ পৌর নির্বাচন : প্রার্থী দৌড়ে নতুন মুখ ছগীর আহম্মেদ
ছগীর আহম্মেদ (ফাইল ছবি)

তফসিল ঘোষণা না হলেও নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ শহরে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। কে হচ্ছেন মেয়র প্রার্থী তা নিয়ে সর্বত্র চলছে আলোচনা। যোগ্য প্রার্থী বেছে নেওয়ার জন্য ভোটাররাও বেশ উৎসাহী। এরই মধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীরা বিভিন্ন এলাকায় শুভেচ্ছা বিনিময় ও ভোট প্রার্থনা করছেন। 

মনোননয়ন পেতে আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মাঠে রয়েছেন। তবে নির্বাচনে নতুন মুখ হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ছগীর আহম্মেদ। তিনি বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে প্রচারণা অব্যাহত রেখেছেন। আগামী নির্বাচনে পৌরসভা থেকে তিনিই একমাত্র প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন।

জানা গেছে, সোনারগাঁ পৌরবাসীর কাছে ক্লিনম্যান হিসেবে দলমত নির্বিশেষে ব্যাপক পরিচিতি মুখ ছগীর আহম্মেদ। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানান, ছাত্রলীগের হাত ধরেই যার রাজনৈতিক জীবন শুরু, সেই হাস্যোজ্জ্বল ও মিষ্টভাষী ছগীর আহম্মেদ নৌকা প্রতীকের লড়াইয়ে নেমেছেন। যার রয়েছে বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন। তার বাবা মরহুম সাহাবুউদ্দীন আহম্মেদ খেলু আমিনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি ছিলেন।

তারা আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে রাজনীতিতে পদার্পণ ছগীর আহম্মেদের। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক পদেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। পৌরবাসীর আশা আকাঙ্ক্ষার স্বপ্ন পূরণে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক প্রত্যাশা করছেন।

ছগীর আহম্মেদ বলেন, নির্বাচিত হলে তিনি পৌরবাসীকে সঙ্গে নিয়ে পৌরসভায় শিক্ষা বিস্তার, মাদকমুক্ত, শতভাগ স্যানিটেশন, বিশুদ্ধ খাবার পানির সুব্যবস্থা ও সকলের সমঅধিকার প্রতিষ্ঠাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গ্রহণের মাধ্যমে সোনারগাঁ পৌরসভা একটি মডেল পৌরসভায় উন্নীত করবেন। এ জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী। 

উল্লেখ্য, ছগীর আহম্মেদ ১৯৯১ সালে সোনারগাঁও জি.আর ইনস্টিটিউশন থেকে এসএসসি পাস করেন। সোনারগাঁও ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস শেষে ১৯৯৫ সালে ঢাকা কলেজে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে এমএসএস-এ ভর্তি হোন। কিন্তু থেমে থাকেনি তার ছাত্রলীগের রাজনীতি। 

ঢাকা কলেজে গিয়েও তিনি শুরু করেন ছাত্র রাজনীতি। পলাশ-ফিরোজ কমিটি, অলোক-মিজান কমিটির আমলেও তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সঙ্গে দীর্ঘদিন রাজনীতি করার পর আবাহনী সমর্থক গোষ্ঠী নামক সংগঠনের ঢাকা কলেজ শাখার সভাপতি নির্বাচিত হন ছগীর আহম্মেদ। 

তারপর ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদক, পরবর্তী কমিটিতে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদেও দায়িত্ব পালন করেন ছাত্রলীগের সাবেক এই নেতা। ছাত্রলীগের রাজনীতিতে কঠোর ভূমিকা রেখে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আমলে ২০০২ সালে ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হোন। ওই সময় বিএনপি-জামায়াতের আমলে ব্যাপক হামলা ও মামলার শিকার হন ছগীর আহম্মেদ।

ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হওয়ার আগে বিএনপি জামায়াত ক্ষমতায় আসার পর ২০০১ সালে ছাত্রদল-ছাত্র শিবির দ্বারা ছগীর আহম্মেদ অমানবিক নির্যাতনের শিকার হন। ২০০৫ সালে আবারো তিনি হামলার শিকার হোন। তাকে সরকারি দলের ইন্ধনে গ্রেফতারও করা হয়। ছগীর আহম্মেদ ২০০২ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সোনারগাঁয়ের এই কৃতি সন্তান পরবর্তীতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ-কমিটিতে সহ-সম্পাদক পদে দায়িত্ব পান।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর