১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৬:০৯

বরিশালে গৃহবধূর আত্মহত্যা; স্বামী ও শাশুড়ির অত্যাচারের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশালে গৃহবধূর আত্মহত্যা; স্বামী ও শাশুড়ির অত্যাচারের অভিযোগ

প্রতীকী ছবি

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার থানেশ্বরকাঠি গ্রামে স্বামী ও শাশুড়ির অত্যাচারে মিতালী হালদার (২২) নামে এক সন্তানের জননী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহনন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মিতালীর মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ। এর আগে গত শুক্রবার রাতে এ ঘটনার পর মিতালীর মা ফুলমারা হালদার বাদী হয়ে মেয়ে জামাতা মিন্টু বৈদ্য ও তার মা পুষ্প রানীকে অভিযুক্ত করে থানায় আত্মহননে প্ররোচনার একটি মামলা দায়ের করেন। 

অভিযুক্ত মিন্টু বৈদ্য থানেশ্বরকাঠি গ্রামের নির্মল বৈদ্যর ছেলে এবং মিতালী আস্কর গ্রামের অমৃত হালদারের মেয়ে। 

স্থানীয়রা জানান, বৈদ্যর সাথে ১০বছর আগে মিতালীর বিয়ে হয়। তাদের ছয় বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। মিতালীর স্বামী অকর্মন্ন এবং মাদকাসক্ত। টাকার জন্য স্ত্রীকে মারধর করতো সে। এক পর্যায়ে বিভিন্ন এনজিও ও স্থানীয় মহাজনদের কাছ থেকে চড়া সুদে ঋণ আনার পর কিস্তি পরিশোধ না করে ভারত পালিয়ে যায় মিন্টু। ১০ মাস পর বাড়ি ফেরে মিন্টু। ঋণের টাকা পরিশোদের জন্য মিতালীকে চাপ দেয় সে। মিতালী টাকা দিতে অপারগতা জানালে গত শুক্রবার রাতে তাকে মারধর করে মিন্টুসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। ওই রাতেই সকলের অগোচরে ঘরের আড়ার সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহনন করে সে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর মিন্টু ও তার মা পালিয়ে যায়।  

আগৈলঝাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাজহারুল ইসলাম জানান, শুক্রবার রাতে মিতালীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মিতালীর মায়ের দায়ের করা মামলার আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর