শিরোনাম
২ জুন, ২০২২ ১৩:৩১

রাজশাহীতে বন্ধ করা হল ৪০ অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

রাজশাহীতে বন্ধ করা হল ৪০ অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক

রাজশাহীতে ৪০টি অবৈধ ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করে দিয়েছে সিভিল সার্জন দফতর। এছাড়া তিনটি প্রতিষ্ঠানকে অর্থদণ্ড করার পাশাপাশি সতর্ক করা হয়েছে। বুধবার রাতে রাজশাহী সিভিল সার্জনের দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রাজশাহী সিভিল সার্জনের দেওয়া তথ্য মতে, রাজশাহী জেলায় ১৬৪টি অবৈধ ডায়াগনস্টিক, ক্লিনিক ও হাসপাতাল চিহ্নিত করা হয়েছে। লাইসেন্স প্রাপ্তির আগে এসব প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম চালাতে পারবে না। যেসব প্রতিষ্ঠান আবেদন করেছে তাদের প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন ও যাচাই বাছাই শেষে লাইসেন্স দ্রুত প্রদানের ব্যবস্থা করা হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত চারদিনে রাজশাহীতে ৪০টি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করা হয়েছে। এই সময় তিনটিকে জরিমানা করে সতর্ক করা হয়। বন্ধ করা ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মধ্যে আছে, তানোরের প্রাইম ডায়াগনস্টিক সেন্টার, চারঘাটের বিএম ক্লিনিক, নিলিমা ক্লিনিক, মিম কমিউনিটি হাসপাতাল। বাগমারার সাফল্য ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ডক্টর ক্লিনিক, হামিরকুৎসা ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ওরিন ডায়াগনস্টিক, ওরিন হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার, রয়েল আলট্রাসাউন্ড অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক, ডা. আব্দুল হাদী হেলথ কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, নিউ বাগমারা ডায়াগনস্টিক সেন্টার। 

এদিকে, পবা উপজেলায় বন্ধ করা হয়েছে লাইফ কেয়ার ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক, সততা ফার্মেসী অ্যান্ড হেলথ সার্ভিস, সিবানী হাসপাতাল, মনোয়ার লাইফ সাপোর্ট ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার, সুফিয়া নার্সিং হোম, মডার্ন আই হাসপাতাল। দুর্গাপুরের দিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টার ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও মৌখিক ভাবে সতর্ক করা হয়। এছাড়া কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হলি ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করা হয়েছে।

বাঘা উপজেলার বাঘা ডায়াগনস্টিক সেন্টার, মুঞ্জু ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, মাহমুদ ডায়াগনস্টিক সেন্টার, মাহমুদ ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড ক্লিনিক, উপসম মেডিকেল সেন্টার অ্যান্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হেলথ কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, আইডিয়াল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, নাদিয়া ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ফারিহা খেয়াল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, খেয়াল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, আল-মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করা হয়েছে।

গোদাগাড়ীর নাহার ক্লিনিক, জনতা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, নিখিলা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করা হয়। মোহনপুরের শতফুল ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করা এবং তাদের ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও রুপোশ মেডিকেয়ার, লাকী ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করা হয়। আর ইসলামীয়া জেনারেল হাসপাতাল এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও মৌখিক ভাবে সতর্ক করা হয়েছে।

এদিকে, রাজশাহী মহানগরীর রাজাপাড়া থানাধীন লক্ষ্মীপুরের নিউরো কেয়ার, মেডিকেল কলেজ গেইটের সামনের শাহ মখদুম ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। রি-লাইফ ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা ও মৌখিক ভাবে সতর্ক করা হয়।

রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. আবু সাইদ মোহাম্মদ ফারুক বলেন, যেসব প্রতিষ্ঠান লাইসেন্স নবায়নের জন্য আবেদন করেনি বা চলতি অর্থ বছরে নতুন যেসব প্রতিষ্ঠান লাইসেন্সের জন্য আবেদন করে লাইসেন্স না পেয়েই প্রতিষ্ঠানে রোগীদের নিয়ে ব্যবসা করছেন, ওই সব প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা দেওয়া হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা অনুসারে আবেদন করে লাইসেন্স না নিয়ে প্রতিষ্ঠানে ব্যবসা শুরু করা যাবে না।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর