শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:১৬

‘দিনবদলের সনদ’ নামে সরকার ভাঁওতাবাজির ইশতেহার দিয়েছিল

-নূর

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

‘দিনবদলের সনদ’ নামে সরকার ভাঁওতাবাজির ইশতেহার দিয়েছিল

সরকার দিনবদলের সনদ নামে ভাঁওতাবাজির ইশতেহার দিয়েছিল মন্তব্য করে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর বলেছেন, ১০ টাকার চাল এখন ৭০ টাকায় খেতে হচ্ছে। ৫ টাকার লবণ ৩২ টাকায় খেতে হচ্ছে। ভাঁওতাবাজির নামে ৪৯ বছর রাজনৈতিক দলগুলো ক্ষমতায় থেকেছে। জনগণের ওপর অত্যাচার, নিপীড়ন চালিয়েছে। নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে গতকাল এক বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি। নূরের সহযোগী সংগঠন যুব অধিকার পরিষদ শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে এ সমাবেশের আয়োজন করে। এতে আরও বক্তব্য দেন ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রাশেদ খান, যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, শ্রমিক অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক আবদুর রহমান প্রমুখ। সমাবেশে নূর বলেন, ভোটারবিহীন এ সরকার দেশকে ব্যর্থ অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

রাষ্ট্রীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সব জায়গায় দলীয়করণের মাধ্যমে দুর্বৃত্তায়ন ঘটানো হয়েছে। ফলে সমাজে গুম-খুন-ধর্ষণের মতো অপরাধ বাড়ছে। ধর্ষণের আইন মৃত্যুদন্ড করা হয়েছে কিন্তু ধর্ষণ কমছে না। শুধু আইন করলে হবে না, আইনের প্রয়োগ করতে হবে। তিনি বলেন, মানুষের অধিকার আদায়ে পাকিস্তান আমলে যেমন রক্ত ঝরাতে হয়েছে এখনো ঝরাতে হচ্ছে। তাহলে পাকিস্তানি হায়েনাদের থেকে মুক্ত হয়ে আমরা কোন হায়েনাদের মুখে পড়লাম, যারা জনগণের জীবন তছনছ করে দিচ্ছে।

বড় বড় টাকা পাচারকারীরা আলোচনায় আসছে না উল্লেখ করে নূর বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন তাঁর কাছে সব ডকুমেন্ট আছে কারা বেগমপাড়ায় বসবাস করছে, কারা কোথায় টাকা পাচার করছে। তাঁকে বলব আপনি তালিকাটি জনগণের সামনে প্রকাশ করুন। আপনার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যদি ব্যবস্থা না নিতে পারে আমরা তাদের ঘরবাড়ির ইট-বালু খুলে নিয়ে জনগণকে ফিরিয়ে দেব। তিনি বলেন, আমাদের কাছে তথ্য আছে ২৫৩টি পরিবার জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। এরাই টাকা পাচার করছে, এরাই সিন্ডিকেট করে দ্রব্যমূল্য বাড়াচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে কেন সরকার ব্যবস্থা নিতে পারছে না কারণ ওপরে থু থু দিলে নিজের শরীরেই আসে।

রাশেদ খান বলেন, ‘দেশে চাকরিজীবীদের কথা বিবেচনা করা হয় কিন্তু কৃষক-শ্রমিকের কথা বিবেচনা করা হয় না। আজকে বাজার নিয়ন্ত্রণ করে সিন্ডিকেট, সরকার বাজার সিন্ডিকেট মুক্ত করতে ব্যর্থ হয়েছে। ফলে দ্রব্যমূল্য মানুষের ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। ফারুক হাসান বলেন, আজ সমগ্র বাংলাদেশকে একটি সিন্ডিকেট দ্বারা পরিচালনা করা হচ্ছে, যার ফলে দেশের কৃষক ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না। অন্যদিকে দ্রব্যমূল্য লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর