শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ আগস্ট, ২০২১ ২৩:৫০

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘নারীর টোপ’ ফেলে প্রতারণা

মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

Google News

ডিজিটাল দুনিয়ায় হন্য হয়ে ঘুরে বেড়ায় তারা টার্গেটের খোঁজে। অবস্থাসম্পন্ন ব্যক্তি কিংবা তাদের পরিবারের সদস্যদের খোঁজ মিললেই সুন্দরী নারীদের মাধ্যমে দেয় টোপ। প্রথমে বন্ধুত্ব অতঃপর প্রেম। এক পর্যায়ে রুম ডেটের নামে নিয়ে যাওয়া হয় প্রতারক চক্রের ডেরায়। এরপর জিম্মি করে নারী সহযোগীদের সঙ্গে অশ্লীল ছবি এবং ভিডিও ধারণ করে তা ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আদায় করা হয় মোটা অঙ্কের টাকা। এভাবেই প্রতারণা করে আসছিল চক্রগুলো। অবশেষে অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠা চক্রগুলোর লাগাম টানতে উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রামের প্রশাসন।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ (সিএমপি)’র কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, ‘সুন্দরী নারীদের দিয়ে ফাঁদে ফেলে প্রতারণা করে এমন চক্রের সদস্যদের বিষয়ে খোঁজ নিতে প্রত্যেক থানা পুলিশকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের তালিকা তৈরি করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ চট্টগ্রাম পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)’র পুলিশ সুপার শাহ নেওয়াজ খালেদ বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে প্রতারণা করছে কিছু চক্র। এক্ষেত্রে তারা ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে নারীদের। এসব প্রতারক চক্রের নিয়ন্ত্রণ করতে উদ্যোগ নিয়েছে সিআইডি।’ অনুসন্ধানে জানা যায়, চট্টগ্রাম নগরীতে নারীদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে প্রতারণা এমন বেশ কয়েকটি চক্র রয়েছে। এ চক্রগুলোর হোতা হিসেবে রয়েছে চিহ্নিত অপরাধী, কথিত সাংবাদিক, রাজনৈতিক দলের নেতাসহ নানান শ্রেণি-পেশার মানুষ। চক্রগুলোর সহযোগী হিসেবে রয়েছে সুন্দরী নারীরা। প্রতারক চক্রের সদস্যরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে সামাজিকভাবে অবস্থাসম্পন্ন ব্যক্তি ও তাদের পরিবারের সন্তানদের টার্গেট করে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে টার্গেটের সঙ্গে গড়ে তুলে কথিত প্রেমের সম্পর্ক। এরপর ‘রুম ডেটিংয়ে’র নাম করে নিয়ে যাওয়া হয় অপরাধীদের ডেরায়। টার্গেটকে জিম্মি করে নারীর সঙ্গে তোলা হয় অশ্লীল ছবি। এরপর মামলার হুমকি ও অশ্লীল ছবি এবং ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আদায় করা হয় মোটা অঙ্কের টাকা।

এ ধরনের প্রতারণা করে এমন কয়েকটি চক্রের গ্রেফতার অভিযানে তদারকি করেছেন সিএমপি দক্ষিণ জোনের উপ-কমিশনার বিজয় বসাক। প্রতারণার ধরন নিয়ে তিনি বলেন, ‘এ পর্যন্ত যতগুলো প্রতারক চক্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে সবগুলোর ধরন প্রায় অভিন্ন। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে টার্গেট নির্ধারণ করে। এরপর নারীর টোপ দিয়ে প্রতারণার চূড়ান্ত রূপ নেয়।’

এই বিভাগের আরও খবর