বুধবার, ৫ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ টা

কুয়েটের ৪৪ শিক্ষার্থীর জবাব যাচাই করেছে শৃঙ্খলা কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর ড. মো. সেলিম হোসেনের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ৪৪ জন শিক্ষার্থীর শোকজের জবাব নিয়ে ছাত্র শৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা হয়েছে। তবে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভা মুলতবি ঘোষণা করা হয়েছে। আজ বুধবার সকাল ৯টায় পুনরায় শৃঙ্খলা কমিটির সভা শুরু হবে। ওই সভা শেষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। পরে বেলা ১১টায় সিন্ডিকেট সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও তথ্য শাখার মুখপাত্র মো. রবিউল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের পর গত ৩০ ডিসেম্বর ওই শিক্ষার্থীদের শোকজ করা হয়েছিল। জানা যায়, গতকাল সকাল ৯টায় শিক্ষকের মৃত্যুর ঘটনায় সম্পৃক্ত ৪৪ শিক্ষার্থীর শোকজের জবাব যাচাইয়ে শৃঙ্খলা কমিটির সভা শুরু হয়।

 

 ১১ সদস্যের কমিটির সবাই উপস্থিত ছিলেন। বিকাল ৫টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জবাব পর্যালোচনা করা হলেও কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়া সভা মুলতবি করা হয়।

কুয়েটে ছাত্র শৃঙ্খলা কমিটির সদস্য সচিব প্রফেসর ড. ইসমাইল সাইফুল্লাহ জানান, একজন শিক্ষার্থী ৪-৫ পাতা করে শোকজের জবাব দিয়েছেন। প্রতিটি ঘটনার ব্যাখ্যা ও জবাব যাচাই করতে সময় লাগছে। এ কারণে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়া সভা মুলতবি করা হয়। বুধবার সকাল ৯টায় আবারও সভা শুরু হবে।

জানা যায়, ৩০ নভেম্বর দুপুর ৩টার দিকে কুয়েটের ইইই শাখার প্রফেসর ও লালন শাহ হলের প্রভোস্ট ড. মো. সেলিম হোসেন হার্ট অ্যাটাকে মারা যান। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে সেলিম হোসেন কুয়েট শাখা ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মীর মানসিক নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন। এতে অভিযুক্ত কুয়েট ছাত্রলীগ শাখার সাধারণ সম্পাদকসহ নয়জনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। লালন শাহ হলে ডিসেম্বর মাসে ডাইনিং ম্যানেজার নির্বাচন নিয়ে ড. সেলিম হোসেনকে চাপ দেওয়া হচ্ছিল।

এদিকে ড. সেলিমের মৃত্যু ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের দাবিসহ পাঁচ দফা দাবিতে ২ ডিসেম্বর থেকে একাডেমিক কার্যক্রম বর্জন করে শিক্ষক সমিতি। ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি তাদের তদন্ত প্রতিবেদনে শিক্ষকের মৃত্যু ঘটনায় ৪৪ জন শিক্ষার্থীর সম্পৃক্ততা খুঁজে পায়। পরে ছাত্র শৃঙ্খলা কমিটি তাদের শোকজ করে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর