শুক্রবার, ২৭ মে, ২০২২ ০০:০০ টা

১৮৫৪ কোটি টাকার ছয় ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের জ্বালানি চাহিদা মেটাতে এক কার্গো এলএনজি আমদানির প্রস্তাবসহ ছয় ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে মোট ব্যয় হবে ১ হাজার ৮৫৪ কোটি ৬৪ লাখ ৪৫ হাজার ৮১৬ টাকা। গতকাল সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে কমিটির ভার্চুয়াল সভায় ক্রয় প্রস্তাবগুলোতে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সভা শেষে অর্থমন্ত্রী ব্রিফিং করেন। সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত ও অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত কমিটির বৈঠকে মোট আটটি প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ছয়টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১ হাজার ৮৫৪ কোটি ৬৪ লাখ ৪৫ হাজার ৮১৬ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি থেকে ব্যয় হবে ১ হাজার ৬৮০ কোটি ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩১৬ টাকা এবং দেশীয় ব্যাংক থেকে ঋণ ১৭৪ কোটি ৬২ লাখ ৭৭ হাজার ৫০০ টাকা। এরপর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরী বলেন, সভায় ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন, ২০১০ (২০২১ সালের সর্বশেষ সংশোধনীসহ)-এর আওতায় স্পট মার্কেট থেকে (২০২২ সালের ১৩তম) এলএনজি আমদানির অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (কাফকো), বাংলাদেশের কাছ থেকে ১৮তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কেনার একটি প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। ২০২১-২০২২ অর্থবছরে পরিকল্পনা অনুযায়ী কাফকো, বাংলাদেশ থেকে ৬ লাখ ৫০ হাজার টন ইউরিয়া সার কেনার সংশোধিত চুক্তি করা হয়। ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ১৮তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কেনার জন্য প্রাইস অফার দেওয়ার অনুরোধ করা হলে কাফকো, বাংলাদেশ প্রাইস অফার পাঠায়।

কাফকোর সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী সারের দাম নির্ধারণ করে ১৮তম লটে ৩০ হাজার টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কেনার অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রতি মেট্রিক টন ৬৭১ মার্কিন ডলার হিসাবে মোট ব্যয় হবে ২ কোটি ১ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার সমপরিমাণ বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৭৪ কোটি ৬২ লাখ ৭৭ হাজার ৫০০ টাকা।

সভায় ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগর-এ পানি শোধনাগার ও গভীর নলকূপ স্থাপন’ প্রকল্পের আওতায় একটি পানি শোধনাগার নির্মাণের পূর্ত কাজের ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। সভায় ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের গ্রিন সিটি আবাসিক কমপ্লেক্স’-এ ২৫ তলা বিশিষ্ট বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের পূর্ত কাজের ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়।

‘চিটাগাং সিটি আউটার রিং রোড (পতেঙ্গা হতে সাগরিকা)’ প্রকল্পের ভেরিয়েশন প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। সিসিজিপি সভার অনুমোদনক্রমে ‘চিটাগাং সিটি আউটার রিং রোড (পতেঙ্গা হতে সাগরিকা)’ প্রকল্পের আওতায় ‘ফিডার রোড-১, ৩ নির্মাণ এবং প্রকল্পের সৌন্দর্য বর্ধন’-এর পূর্তকাজ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান স্পেক্ট্রা ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের কাছ থেকে ৩৬৮ কোটি ৭৩ লাখ ১৬ হাজার ১৮৭ টাকায় চুক্তি হয়। চুক্তি অনুসারে পূর্ত কাজ বাস্তবায়নকালে কিছু টেন্ডাভুক্ত/নন-টেন্ডার আইটেম কম-বেশি হওয়ায় ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ১০৮ কোটি ১৯ লাখ ২ হাজার ৩০৮ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এর আগে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা হয়। সভায় দুটি প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। এর মধ্যে ‘হেলথ অ্যান্ড জেন্ডার সাপোর্ট ইন কক্সবাজার ডিস্ট্রিক্ট’ অপারেশনাল প্ল্যানের আওতায় অত্যাবশ্যকীয় ওষুধ সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে কেনার প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান অ্যাসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেড থেকে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে বর্ণিত ক্রয়ে সম্ভাব্য ব্যয় হবে ৩১ কোটি টাকা। এ ছাড়া কাফকোর সঙ্গে চুক্তি নবায়নের একটি প্রস্তাবেও নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।

সর্বশেষ খবর