শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ এপ্রিল, ২০২০ ২১:৩৯
আপডেট : ৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:৫৭

করোনা ওয়ার্ড থেকে ২ রোগীর পলায়ন, পুলিশ মোতায়েন চায় কর্তৃপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল :

করোনা ওয়ার্ড থেকে ২ রোগীর পলায়ন, পুলিশ মোতায়েন চায় কর্তৃপক্ষ
ফাইল ছবি

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শেবাচিম) করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ২ রোগী পালিয়েছে। গত সোমবার একজন এবং সবশেষ গতকাল মঙ্গলবার পালিয়েছেন আরেক রোগী। এ ঘটনায় কোতয়ালী থানায় পৃথক সাধারণ ডায়েরি করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এছাড়া কোতয়ালী থানার ওসির কাছে আবেদনে রোগী পলায়ন বন্ধে করোনা ওয়ার্ডের গেটে পুলিশ মোতায়েনের দাবি জানায় কর্তৃপক্ষ। 

গত ৫ এপ্রিল দিবাগত রাত ১টা ৪৪ মিনিটে জ্বর, গলাব্যাথা ও কাশি নিয়ে শের-ই বাংলা মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন বরগুনা সদর উপজেলার লবনগোলা গ্রামের নাদিরা বেগম (৩৫)। কিন্তু পরদিন ৬ এপ্রিল থেকে তাকে খুঁজে পায়নি করোনা ওয়ার্ডের চিকিৎসক, নার্সসহ সংশ্লিষ্টরা। একইভাবে গত ৪ এপ্রিল বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে জ্বর, গলা ব্যথা ও কাশি নিয়ে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন ভোলা সদর উপজেলার চন্দ্রপ্রশাদ গ্রামের নুরুল ইসলাম (৬৫)। তিনদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর গত মঙ্গলবার দুপুর থেকে তাকেও খুঁজে পাচ্ছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

পরপর দুই দিন করোনা ওয়ার্ড থেকে দুই রোগীর পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় কোতয়ালী মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন। এছাড়া তিনি রোগী পালিয়ে যাওয়া ঠেকাতে করোনা ওয়ার্ডের গেটে সার্বক্ষণিক পুলিশ মোতায়েনের জন্য কোতয়ালী থানার ওসির কাছে অনুরোধ করে চিঠি দিয়েছেন। 

মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহবুদ্দিন খান এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পালিয়ে যাওয়া ওই রোগীদের নাম-ঠিকানা সংশ্লিষ্ট থানাসহ সম্ভাব্য সকল স্থানে প্রেরণ করা হয়েছে। তারা যদি পালিয়ে গিয়ে নিজ বাড়িতে বা অন্য কোথাও আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেয় সেটা উত্তম। কিন্তু তারা যদি জনসাধারণের সাথে ঘোরাফেরা করেন তাহলে ঝুঁকি থেকে যায়। তাই তাদের যে কোন উপায়ে আইসোলেশনে কিংবা কোয়ারেন্টাইন করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য