শিরোনাম
প্রকাশ : ১০ এপ্রিল, ২০২০ ২০:২৭

করোনাভাইরাস

চুয়াডাঙ্গা কারাগারে বিশেষ সতর্কতা, ৬০ জনকে মুক্তির সুপারিশ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গা কারাগারে বিশেষ সতর্কতা, ৬০ জনকে মুক্তির সুপারিশ

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনে চুয়াডাঙ্গা কারাগার থেকে ৬০ জনকে মুক্তি দেওয়া যেতে পারে বলে প্রস্তাবনা পাঠিয়েছে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগার কর্তৃপক্ষ। এর পাশাপাশি করোনাভাইরাস যাতে কারা অভ্যন্তরে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়েছে বিশেষ সতর্কতা। 

নতুন কোনো আসামি কারাগারে এলে তাকে আলাদা কক্ষে পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে। কারাগারের কাউকে তার স্বজনদের সাথে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। তবে, স্বজনদের সাথে মোবাইলফোনে কথা বলার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। 

চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারের জেলার শওকত হোসেন মিয়া জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে বর্তমানে বন্দী আছেন ৫৩০ জন। এরা সকলেই একপ্রকার হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। ১৬টি আলাদা আলাদা কক্ষে রাখা হয়েছে বন্দীদের। ৫৩০ বন্দীর মধ্যে নারী আছেন ২৬ জন। তারা যে যেখানে আছেন সেখানেই রাখা হয়েছে। খাবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে তাদের নির্দিষ্ট কক্ষে। চুয়াডাঙ্গা কারাগারে আটক কারো মধ্যে করোনা উপসর্গ নেই। তবে, নতুন যারা কারাগারে আসছেন তাদের আলাদা রেখে তাদের প্রতি নজর দেওয়া হচ্ছে। 

এক বছরের কম সাজাপ্রাপ্ত, সাজা হলে এক বছরের কম সাজা হতে পারে এবং যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে যারা কারাগারে ইতিমধ্যেই ২০ বছর সময় পার করেছেন এমন ৬০ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রয়োজনে তাদের মুক্তি দেওয়া যেতে পারে বলে উর্ধতক কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য