শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০২

কুড়িগ্রামে বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামে বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ

করোনা সংক্রমণ রোধে সরকারের নিষেধাজ্ঞার ফলে কাজকর্ম না থাকায় বিপাকে পড়েছেন কুড়িগ্রামের শ্রমজীবী মানুষ। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক গত ৫ দিন যাবত হোমকোয়ারেন্টাইনে থাকায় চরম বিপাকে রয়েছেন তারা। রাস্তা-ঘাটে লোকজন না থাকায় রিকশাওয়ালা ও পরিবহন শ্রমিকদের অনেকেই পরিবার নিয়ে অনাহারে রয়েছেন। তাদের দাবি ঘরে বসে থাকলে পেটে ভাত যাবে না, পরিবার নিয়ে না খেয়ে মরতে হবে।

হলোখানা ইউনিয়নের শ্রমিক ময়নাল হোসেন জানান, ‘হামার দিকে কাইয়ো তাকায়না। বাড়িত যদি বসি থাকি তাইলে বউয়ের গাইল শোনা লাগে। পেটত নাই ভাত ক্যামনে বাড়িত বসি থাকি। তাই পেটের দাহে ঠেলা নিয়ে আসছি। এলাও কোন কামাই হয় নাই।’ অন্যদিকে, ‘মোগলবাসা ইউনিয়নের জামাল মিয়া জানান, দুইদিন আগে যে কয়টাকা কামাই করছি তাহে দিয়া এই কয়দিন চলিল। এ্যালা কি খামো? কামাই তো বন্ধ। বাড়িত বসি থাকার কথা আইনের লোক কইছে। এ্যালা কি করম? ভাবি পাই না। হামাক তো সাহায্য কাইয়ো দিচ্ছে না। এলাকার মেম্বরক কছি। তাই একটা আইডি কাড দিবার কইছে তাক আইজ দিছি। কুনদিন যে কি পামো তাক কবার পাইনা।’ সরকারি কোন সহায়তা তারা পায়নি বলে অভিযোগ এসব শ্রমজীবি মানুষের। জেলা প্রশাসক রেজাউল করিম জানান, জেলার ৯ উপজেলায় ১৯৬ মেট্রিকটন খাদ্য সহায়তা হিসেবে চাল, ডাল, আলু ও তেলসহ খাবার প্রদান করা হয়েছে যা পর্যায়ক্রমে বিতরণ করা হচ্ছে। এ ছাড়াও কুড়িগ্রাম পৌরসভাসহ জেলার ৩ পৌরসভায় আলাদাভাবে আরও ত্রাণ বিতরণ করা হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর