Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১০:২৬

বাগাতিপাড়ায় পাউবো’র কোটি টাকার সম্পত্তি বেদখল

নাটোর প্রতিনিধি:

বাগাতিপাড়ায় পাউবো’র কোটি টাকার সম্পত্তি বেদখল

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বাঁশবাড়িয়া হালকা সেচ প্রকল্পের কোটি কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি বেদখল হয়ে গেছে। ১৯৮৯ সালে সুবিধা ভোগীদের কাছে হস্তান্তরের পর থেকে এই প্রকল্প দেখার কেউ নেই। যার কারণে প্রকল্পের পাকা ড্রেন, খাল ভরাট করে বসতবাড়ি, দোকানপাট ও বেসরকারি অফিস নির্মাণ করেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এতে করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন স্থানীয় কৃষকরা। 

পুনরায় প্রকল্পটি সরকারি ব্যবস্থাপনায় নিয়ে চালু করার দাবি স্থানীয়দের। 

এবিষয়ে এলাকার কৃষক ইয়াকুব আলী, আবুল কালাম, আয়ুব আলী, হোসেন আলী, বারেক আলী, সেকেন্দার রহমানরা জানান, সেচের অভাবে তারা সুষ্ঠুভাবে ফসলাদি উৎপাদন করতে পারছেন না। ফলে তারা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। 

স্থানীয় জামনগর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস বলেন, প্রকল্পটির পুরো সম্পদ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন। তাদের উদাসীনতার কারণে এসব সম্পদ বেদখলে যাচ্ছে। কৃষকদের ভাগ্য উন্নয়নে কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে প্রতিষ্ঠিত প্রকল্পটি বেদখল বা বন্ধ হয়ে গেলে শুধু সরকারের সম্পদেরই ক্ষতি হবে না এলাকার কৃষকরাও পড়বেন বিড়ম্বনায়। আর সর্বোপরি বিরূপ প্রভাব পড়বে দেশের চালিকা শক্তি কৃষি উৎপাদনে। তিনি দ্রুত দখল হওয়া সম্পত্তি উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। 

প্রকল্পের এমন পরিস্থিতিতে নাটোর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহাবুবুর রহমান জানান, সরকারি প্রকল্প সরকার স্থানীয় সুবিধা ভোগীদের কাছে হস্তান্তর করেছে। এখন এগুলো তারাই দেখাশুনার করেন। তবে ইতোমধ্যেই দখল হয়ে যাওয়া জমিগুলো পরিদর্শন করা হয়েছে। দখলমুক্ত করার কার্যক্রম শুরু করা হচ্ছে। আগামী অর্থ বছরের মধ্যেই দখলদারদের উচ্ছেদ করে পুনরায় ব্যবহার উপযোগী করা হবে।  

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য