Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ জুলাই, ২০১৯ ২২:০১

চকরিয়ায় বন্যায় ৪০ হাজার বসতঘর ক্ষতিগ্রস্ত

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি:

চকরিয়ায় বন্যায় ৪০ হাজার বসতঘর ক্ষতিগ্রস্ত
ফাইল ছবি

টানা ভারী বৃষ্টি ও মাতামুহুরী নদীর পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট বন্যায় কক্সবাজারের চকরিয়ায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এরই মধ্যে অন্তত ৪০ হাজার বসতঘর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। পাশাপাশি ছয় কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ভেঙে গেছে। ভেসে গেছে কয়েক কোটি টাকার মাছ। নষ্ট হয়েছে সবজি ক্ষেত, শতশত একর জমির মজুদ রাখা লবণ ও গ্রামীণ সড়ক অবকাটামো ।

চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের তথ্যানুযায়ী, প্রাথমিকভাবে ১০ দিনের বন্যায় ৪০ হাজার ১৬০টি বসতঘর নষ্ট হয়ে গেছে। উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১৮টি ইউনিয়নের ১৯৫ কিলোমিটার গ্রামীন সড়ক ভেঙে যান চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বন্যার পানিতে এক কোটি ৩৯ লাখ টাকার সবজি ক্ষেত নষ্ট হয়েছে। মৎস্য খাতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। চিংড়ি ঘেরসহ ব্যক্তি খাতে তিন হাজার পুকুরের মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গিয়ে ৫৬ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এছাড়া উপকূলীয় এলাকায় ৮৫০ মিটার বেড়িবাঁধ ভেঙে গেছে। ফলে সাগরের পানি লোকালয়ে প্রবেশ করছে। তাছাড়া বিএমচরের একটি মসজিদ মাতামুহুরী নদীতে বিলীন হয়ে গেছে।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান জানান, টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে চকরিয়ায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর সংশ্লিষ্ট দফতরের মাধ্যমে প্রাথমিক ক্ষয়ক্ষতির একটি চিত্র জেলা প্রশাসনের কাছে পাঠিয়েছি। বন্যার পানি পুরোপুরি নেমে গেলে আরও একটি প্রতিবেদন তৈরি করতে সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে বলা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ক্ষয়ক্ষতির প্রাথমিক চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করণীয় নিয়ে একটি প্রতিবেদনও পাঠিয়েছি। মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্দ পাওয়া গেলে গ্রামীণ সড়কগুলো দ্রুত মেরামতসহ ক্ষতিগ্রস্থদের সাহায্য করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য