শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:২২

গৌরনদীতে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:

গৌরনদীতে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

বরিশালের গৌরনদীতে যৌতুক দাবির আড়াই লাখ টাকা না পেয়ে রেশমা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূকে শারীরিক নির্যাতন শেষে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। গত শনিবার দিবাগত রাতে এই ঘটনা ঘটে। এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পরপরই গৃহবধূর স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন পালিয়ে গেছে। 

রবিবার সকালে থানা পুলিশ ওই উপজেলার নওপাড়া গ্রাম থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরন করে। পুলিশ ওই গৃহবধূর শ্বাশুড়ি প্রিয়া ঝর্ণা খানমকে (৫০) আটক করেছে। 

গত তিন বছর আগে একই উপজেলার কটকস্থল গ্রামের আবু ফকিরের মেয়ে রেশমা আক্তারের সঙ্গে নওপাড়া গ্রামের আ. রাজ্জাক শিকদারের ছেলে নয়ন শিকদারের (২৮) বিয়ে হয়। বিয়ের সময় মেয়ে জামাতা নয়ন শিকদারকে ৩ ভরি স্বর্ণালংকারসহ ৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল দেয়া হয়। তাদের সংসারে ১৮ মাস বয়সের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

নিহতের বাবা আবু ফকির অভিযোগ করেন, বিয়ের এক বছর পর  মেয়ে জামাতা নয়ন শিকদারকে পান বরজ করার জন্য এক লাখ টাকা দেয়া হয়। গত ১৫ সেপ্টেম্বর রেশমার কাছে আরও আড়াই লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে নয়ন। 

গত শনিবার রাতে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন রেশমাকে শারীরিক নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে আত্মহত্যার প্রচারনা চালায় বলে দাবি আবু ফকিরের। 

গৌরনদী মডেল থানার ওসি গোলাম ছরোয়ার জানান, রেশমার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রবিবার দুপুরে বরিশাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। মাদকাসক্ত স্বামী নয়ন শিকদার যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী রেশমা আক্তারকে কিল-ঘুষি মারার পর শ্বাসরোধে হত্যা করেছে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে। রেশমার শাশুড়িকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের সহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন ওসি।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর