শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর, ২০২০ ২০:৩২
প্রিন্ট করুন printer

বগুড়ায় চুরি যাওয়া মালামালসহ চোরচক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক,বগুড়া

বগুড়ায় চুরি যাওয়া মালামালসহ চোরচক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

বগুড়ার শেরপুরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আন্তঃজেলা সংঘবদ্ধ চোরচক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। পরে তাদের দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী দুইটি চুরির ঘটনায় খোয়া যাওয়া মালামালও উদ্ধার করা হয়েছে। 

গত বুধবার (২৫ নভেম্বর) রাত থেকে শুরু হয়ে  বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর পর্যন্ত এই উদ্ধার অভিযান চলে। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) মো. গাজিউর রহমান, শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

আটককৃতরা হলেন পৌরশহরের বৃন্দাবনপাড়া এলাকার মুনছের আলীর ছেলে মো. জীবন (২৯), রামচন্দ্রপুরপাড়ার মৃত লাল খানের ছেলে মো. মোসাদ্দেক হোসেন মক্কা (৩৫), উত্তরসাহাপাড়া এলাকার দিলীপ চন্দ্র মোহন্তের ছেলে মদন চন্দ্র মোহন্ত (৩০), উপজেলার গাড়ীদহ ইউনিয়নের রণবীরবালা গ্রামের জহুরুল ইসলাম মিলনের ছেলে মো. রাজু আহমেদ (৩০) ও সীমাবাড়ী ইউনিয়নের ধনকুণ্ডি জমিদারপাড়া গ্রামের মৃত আবুল কালাম আজাদের ছেলে সাখাওয়াত হোসেন শিমুল (৪০)। 

এসময় তাদের নিকট থেকে তিনটি ল্যাপটপ, তিনটি মোবাইল ফোন, একটি গ্যাস সিলিন্ডার, একটি গ্যাসের চুলা ও একটি সিস্টেম ইউনিট উদ্ধার করা হয়।

বগুড়ার শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম আবুল কালাম আজাদ জানান, সম্প্রতি পৌর শহরের শান্তিনগরস্থ সাপ্তাহিক আজকের শেরপুর পত্রিকায় কার্যালয়ে এবং শহরের খন্দকারপাড়াস্থ এ্যাডভান্স স্কুল এন্ড কলেজের অফিস কক্ষে চুরির ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় ভুক্তভোগীদের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়। এদিকে গত বুধবার দিবাগত রাতে শহরের কলেজরোড এলাকায় সংঘবদ্ধ তিন চোরকে আটক করে এলাকাবাসী। আর এ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে চোরদের সোপর্দ করা হয়। পরে থানায় এনে তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর তারা ওইসব চুরির ঘটনার কথা স্বীকার করেন। সেইসঙ্গে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে চুরি যাওয়া মালামালগুলো উদ্ধার করা হয়। 

তিনি আরও জানান, আটক হওয়া ব্যক্তিরা সবাই আন্তঃজেলা সংঘবদ্ধ চোরদলের সক্রিয় সদস্য। আর সম্প্রতি ওইসব চুরির ঘটনায় তাদের সঙ্গে আরও বেশ কয়েকজন অজ্ঞাত ব্যক্তিরা জড়িত থাকতে পারে। তাই আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন। এজন্য সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে ।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর