১০ জুন, ২০২২ ১২:৪০

চুয়াডাঙ্গায় মাঙ্কিপক্স সন্দেহে হাসপাতালের আইসোলেশনে বৃদ্ধা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গায় মাঙ্কিপক্স সন্দেহে হাসপাতালের আইসোলেশনে বৃদ্ধা

ফাইল ছবি

চুয়াডাঙ্গায় মাঙ্কিপক্স সন্দেহে এক বৃদ্ধাকে হাসপাতালের আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধির সাথে যোগাযোগ করেছেন সিভিল সার্জন। ইতিমধ্যেই তারা নমুনা নিয়েছেন। পরীক্ষার পর সঠিক তথ্য জানা যাবে।

পরিবারের দাবি, বিদেশ ফেরত কারো সাথে তাদের সংশ্লিষ্টতা নেই। তারপরও সতর্কতার জন্য তারা রোগীকে হাসপাতালে রেখেছেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. ওয়াহিদ মাহমুদ রবিন বলেন, বৃহস্পতিবার হাত ও পায়ের বিভিন্ন অংশে ফোসকা নিয়ে ষাটোর্ধ্ব এক নারী আসেন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে। বহির্বিভাগে রোগীকে পরীক্ষা করা হয়। উপসর্গ দেখে সন্দেহ হলে বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানানো হয়। পরে খবর দেওয়া হয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধিকে।

অসুস্থ বৃদ্ধার স্বজনরা জানান, কয়েকদিন আগে ওই নারীর শরীরের বিভিন্ন অংশে ফোসকা দেখা দেয়। সারা শরীরে অনুভূত হয় ব্যথা। ফোসকাগুলোতে তরলের উপস্থিত টের পান তারা। এ অবস্থা দেখে বৃহস্পতিবার তাকে হাসপাতালে নেন পরিবারের লোকজন।

পরিবারের দাবি, বিদেশ ফেরত কারো সাথে তাদের সংশ্লিষ্টতা নেই। ওই নারী ছাড়া পরিবারের অন্য কারও মধ্যেও এ উপসর্গ দেখা যায়নি। তারপরও তারা সতর্কতামূলক চিকিৎসকের কাছে যান।

এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর শুক্রবার সকালে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীকে হাসপাতালে ফিরিয়ে এনে আইসোলেশনে রেখেছেন।

চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা. মো. সাজ্জাৎ হাসান জানান, বিষয়টি জানার সাথে সাথেই আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে জানিয়েছি। তারা নমুনা সংগ্রহ করেছেন। পরীক্ষার পরই নিশ্চিত হওয়া যাবে এটি মাঙ্কিপক্স কি না। তার আগে ওই নারীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর