শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১২ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ মে, ২০২১ ২২:৫৩

ঈদের দিনের করণীয় আমল

মুফতি মাহমুদুল হক জালীস

Google News

ঈদ প্রত্যেক মুসলমানের জন্য এক বিরাট নিয়ামত। আল্লাহর পক্ষ থেকে বিশেষ অনুগ্রহ। এটি এক মাস সিয়াম সাধনার পর আনন্দ উদ্যাপনের দিন। সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করার দিন। ধনী-গরিবের এক কাতারে দাঁড়িয়ে সালাত আদায়ের দিন। ফকির-মিসকিনের প্রতি ধনীদের সহমর্মিতার দিন। সামর্থ্য  অনুযায়ী দান-খয়রাত করার দিন। গরিবের মুখে একচিলতে হাসি ফোটানোর দিন। আনন্দের এ দিনে এমন অনেক আমল আছে যার মাধ্যমে আমরা আল্লাহর নিকটবর্তী হতে এবং ঈদ উদ্যাপনের এ মাহেন্দ্রক্ষণকে ইবাদতে পরিণত করতে পারি।

ঈদের দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আমল হচ্ছে ঈদের নামাজ আদায়। এ প্রসঙ্গে হাদিসে এসেছে, ‘রসুল (সা.) ঈদুল ফিতরের দিন বের হয়ে দুই রাকাত ঈদের নামাজ আদায় করেছেন। এর আগে ও পরে অন্য কোনো নামাজ আদায় করেননি।’ বুখারি।

ঈদের দিনের আর একটি আমল গোসল করা। ঈদের দিন গোসল করার মাধ্যমে পরিষ্কার-পরিচ্ছছন্নতা অর্জন করা একান্ত প্রয়োজন। কেননা এদিন সব মানুষ নামাজ আদায়ের জন্য মিলিত হয়। এ প্রসঙ্গে হজরত ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত রয়েছে, ‘তিনি ঈদুল ফিতরের দিনে ঈদগাহে যাওয়ার আগে গোসল করতেন।’ বায়হাকি।

ঈদের দিনের আর একটি আমল হেঁটে ঈদগাহে যাওয়া। ঈদগাহে হেঁটে যাওয়া সুন্নত। হজরত আলী (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, ‘সুন্নত হলো ঈদগাহে হেঁটে যাওয়া।।’ তিরমিজি।

ঈদের নামাজের খুতবা শোনা : ঈদের খুতবা বিশেষ গুরুত্বের দাবি রাখে। এতে ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ে নির্দেশনা থাকে। হজরত আবদুল্লাহ বিন সায়েব (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, ‘আমি রসুল (সা.)-এর সঙ্গে ঈদ উদ্যাপন করলাম। তিনি ঈদের নামাজ শেষ করে বললেন আমরা এখন খুতবা দেব। যার ভালো লাগে সে যেন বসে আর যে চলে যেতে চায় সে যেতে পারে।’ আবু দাউদ।

ঈদের দিন দোয়া ও ইসতিগফার বেশি বেশি করা। ঈদের দিনে আল্লাহ তাঁর অনেক বান্দাকে মাফ করে দেন। এ প্রসঙ্গে মুয়ারিক আলইজলি (রহ.) বলেন, ‘ঈদের দিনে আল্লাহ একদল লোককে এভাবে মাফ করে দেবেন, যেমন তাদের মা তাদের নিষ্পাপ করে জন্ম দিয়েছিলেন।’

লেখক : মুহাদ্দিস খাদিমুল ইসলাম মাদরাসা, কামরাঙ্গীর চর, ঢাকা।