শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ জুলাই, ২০২০ ০০:১৪

ভারতে বাড়ছে লকডাউন

গৌতম লাহিড়ী, নয়াদিল্লি

ভারতে লকডাউনের মেয়াদ ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। গতকালই শেষ হয়েছে চতুর্থ দফার লকডাউন। শেষ দিনে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পঞ্চম দফায় লকডাউন জারির ঘোষণা দেন। তিনি তাঁর ভাষণে নাগরিকদের সতর্ক করে দিয়ে বলেন, স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করলে খেসারত দিতে হবে। লকডাউন সামান্য প্রত্যাহার করার পরে নাগরিকদের মধ্যে নিয়ম ভঙ্গ করার প্রবণতা বেড়েছে। ভারতে যে কনটেনমেন্ট জোন রয়েছে সেখানে নিয়ম শিথিল করা হচ্ছে না। দিল্লিতেই রয়েছে ১৩০ কনটেনমেন্ট জোন। তবে তিনি বলেছেন, লকডাউন চললেও আর্থিক কর্মকান্ড বাড়ানো হবে। তিনি এও বলেন, বিশ্বের অন্য দেশের জনসংখ্যার তুলনায় ভারতে করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে রাখা হয়েছে। লকডাউনের জন্য এটা সম্ভব হয়েছে। জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী মোদি অবশ্য চীনের সঙ্গে চলমান সীমান্ত বিবাদ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা অনুাযায়ী এখনো মেট্রো শহরতলির ট্রেন-সিনেমা-জিমন্যাসিয়ামন্ডবার বন্ধ থাকবে। নিয়ন্ত্রিত দূরপাল্লার ট্রেন ও বিমান পরিবহন চালু হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিমান পরিষেবা ও ট্রেন বাড়ানো হবে। আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবার ব্যাপারে ১৫ জুলাইয়ের পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। রাতের কারফিউ কিঞ্চিৎ শিথিল করা হয়েছে। এখন রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ থাকবে। প্রধানমন্ত্রী মোদি ঘোষণা করেছেন আগামী নভেম্বর পর্যন্ত দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে ৫ কেজি গম বা চাল দেওয়া হবে এবং মাসে একবার ১ কেজি ডাল দেওয়া হবে। এইসঙ্গে চালু হচ্ছে গোটা দেশের জন্য এক রেশন কার্ড। অর্থাৎ দেশের যে কোনো প্রান্তে থাকলেই এ রেশনের সুবিধা মিলবে। এর জন্য ব্যয় হবে ৯০ হাজার কোটি রুপি। আগের তিন মাস ধরলে মোট ব্যয় হবে ১ লাখ ৭৫ হাজার কোটি রুপি। প্রধানমন্ত্রী সতর্ক করে বলেছেন, যারা লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গ করবেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিয়ম প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে গ্রামপ্রধানের জন্য এক। বুলগেরিয়ার প্রধানমন্ত্রী বয়কো বরিসভরির উদাহরণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি মাস্ক না পরার জন্য জরিমানা দিয়েছেন। ভারতে করোনায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত ৫ লাখ ৬০ হাজার ব্যক্তি। মারা গেছেন ১৭ হাজার।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর