শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৪০

খোলা থাকবে ব্যাংক, টাকা তুলতে দীর্ঘলাইন

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগের দিন বন্ধের ঘোষণা দিলেও ফের ব্যাংক লেনদেন চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আগের দিনের জারি করা নির্দেশনা বাতিল করে নতুন প্রজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে। নতুন প্রজ্ঞাপনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ব্যাংকে স্বাভাবিক লেনদেন চলবে এবং খোলা রাখা যাবে আড়াইটা পর্যন্ত। এদিকে ব্যাংক লেনদেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জেনে গতকাল গ্রাহকরা ভিড় করেন ব্যাংক শাখায়। হিড়িক পড়ে টাকা তোলার। গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংকের জারি করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে রবিবার, মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার। আর সিটি করপোরেশন এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে। এ ছাড়া প্রধান শাখাসহ বৈদেশিক মুদ্রায় অনুমোদিত ডিলার শাখা খোলা রাখতে হবে। ব্যাংক বন্ধের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নেওয়া আগের দিনের সিদ্ধান্তের কারণে মঙ্গলবার (গতকাল) সকাল থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ব্যাংকে ছিল উপচেপড়া ভিড়। এমনকি রাজধানীর অনেক শাখায় গ্রাহক চাহিদামতো টাকা না পাওয়ার অভিযোগও করেছেন। ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণে ব্যাংকগুলোর এটিএম বুথ থেকে দিনে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ উত্তোলনের সীমা বাড়িয়ে দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বর্তমানে বেশির ভাগ ব্যাংকের কার্ড দিয়ে দিনে ৫০ হাজার টাকা ও কিছু ব্যাংক থেকে এর বেশি অর্থ উত্তোলন করা যায়। নিজ ব্যাংকের বুথ ও অন্য ব্যাংকের বুথ থেকে একই সীমা প্রযোজ্য হবে। রাজধানীর মতিঝিল এলাকার ব্যাংক শাখাগুলোয় দেখা গেছে, সকাল ১০টায় লেনদেন শুরু হওয়ার আগেই প্রচুর গ্রাহক ভিড় করেছেন। সকাল ১১টার দিকে মতিঝিলের সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে দেখা গেছে অন্তত ১০ থেকে ১২টি কাউন্টারের প্রতিটিতে লম্বা লাইন গ্রাহকদের।

শুধু সোনালী ব্যাংকেই নয়, মতিঝিলে অবস্থিত সবগুলো ব্যাংকের শাখায় একই ধরনের চিত্র দেখা গেছে। করোনা আতঙ্কের মধ্যে কর্মকর্তাদের এ ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যাংকে সেবা দেওয়ার কথা থাকলেও বেশির ভাগ শাখায় সেটা সম্ভব হয়নি। প্রতিটি লাইনে দাঁড়ানো গ্রাহকদের স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনো বালাই ছিল না। কিছু কিছু শাখায় চাহিদা মতো টাকা পাওয়া যায়নি, এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংক নগদ টাকাও সরবরাহ করেছে। তবে গ্রাহকদের আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর