শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:২৯

উপদেষ্টাদের সঙ্গে বিএনপি হাইকমান্ডের ভার্চুয়াল বৈঠক

সরকারের দমনপীড়নে সোচ্চার ও দলকে গতিশীল করার প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

দেশে বিরাজমান সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে ধারাবাহিক ভার্চুয়াল বৈঠক শুরু করেছেন বিএনপির হাইকমান্ড। এরই অংশ হিসেবে গতকাল বিকালে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও চেয়ারপারসনের ১৩ উপদেষ্টা। বৈঠকে অংশ নেওয়া বিএনপি নেতারা বলেছেন, সরকার যেভাবে হেফাজতে ইসলামের নামে আলেম-  ওলামা এবং বিএনপি নেতা-কর্মীদের দমনপীড়ন ও গ্রেফতার-হয়রানি করছে তার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। এ নিয়ে দলের সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করার পক্ষে কেউ কেউ মত দেন। প্রায় সবার বক্তব্যেই উঠে আসে বিএনপির সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতিশীল ও শক্তিশালী করতে হবে। করোনা পরিস্থিতিতে সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করতে হবে। বৈঠকে বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা হয়। বেগম জিয়ার সুস্বাস্থ্য কামনার পাশাপাশি করোনায় আক্রান্ত বিএনপি নেতা-কর্মীদের জন্য বিশেষ দোয়া করতে বলা হয়।

জানা যায়, গতকাল প্রথম বৈঠক শুরু হয় বিকাল সাড়ে ৩টায়। সাড়ে ৫টা পর্যন্ত এ বৈঠক চলে। এতে ১৫ জন উপদেষ্টাকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও অংশ নেন ১৩ জন। পর্যায়ক্রমে প্রতিদিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে অন্যসব উপদেষ্টা ও ভাইস চেয়ারম্যানরা অংশ নেবেন। আজ আবারও বিকাল সাড়ে ৩টায় বৈঠক শুরু হবে। প্রাথমিকভাবে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত বৈঠকের রূপরেখা চূড়ান্ত করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে এ বৈঠক চলবে। প্রতিটি বৈঠকেই তারেক রহমান সভাপতিত্ব করবেন, থাকবেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ ছাড়া প্রতি বৈঠকেই স্থায়ী কমিটির এক বা একাধিক সদস্য পর্যায়ক্রমে থাকবেন। গতকালের বৈঠকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা উকিল আবদুস সাত্তার এমপি, আমানউল্লাহ আমান, মিজানুর রহমান মিনু, মশিউর রহমান, আবুল খায়ের ভূইয়া, জয়নুল আবদিন ফারুক, মনিরুল হক চৌধুরী, হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, ফজলুল হক আসপিয়া, সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি, মো. আবদুল কাইয়ুম, এস এম জহিরুল ইসলাম, ইসমাইল জবিউল্লাহ অংশ নেন। বৈঠক সঞ্চালনা করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় দফতরের দায়িত্বে থাকা সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স। বৈঠকে অংশ নেওয়া সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি বলেন, দেশের বিরাজমান পরিস্থিতি, সাংগঠনিক অবস্থা ও করোনা মহামারী নিয়ে দলের হাইকমান্ডের সঙ্গে এ বৈঠক হয়। বৈঠকে আমাদের চেয়ারপারসনের স্বাস্থ্যের সার্বিক অবস্থা নিয়ে আলোচনা হয়। ম্যাডামসহ করোনায় আক্রান্ত নেতা-কর্মীদের জন্য দোয়া করা হয়। বৈঠকে অংশ নেওয়া চেয়ারপারসনের আরেক উপদেষ্টা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, চলমান হেফাজত ইস্যু নিয়ে অনেকেই কথা বলেন। সরকার হেফাজতের নামে যে আলেম-ওলামাদের গ্রেফতার-হয়রানি করছে তার তীব্র নিন্দা জানানো হয়। একই সঙ্গে হেফাজত ইস্যুতে বিএনপি নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার-হয়রানিতে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। সরকারের এ অনৈতিক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার ভূমিকা পালনের পরামর্শও দেন কেউ কেউ। আরেক উপদেষ্টা বলেন, করোনাসহ নানা প্রতিকূল পরিবেশেও বিএনপিকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করার কোনো বিকল্প নেই। দল গোছানোর জন্য হাইকমান্ডের উদ্যোগ নেওয়া উচিত। বিশেষ করে তৃণমূল বিএনপিকে শক্তিশালী করতে এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

এই বিভাগের আরও খবর