শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ জুন, ২০১৯ ০৩:০৯
আপডেট : ১৮ জুন, ২০১৯ ০৬:৩০

এটা হত্যাকাণ্ড : মুসলিম ব্রাদারহুড

অনলাইন ডেস্ক

এটা হত্যাকাণ্ড : মুসলিম ব্রাদারহুড

মিশরের প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির মৃত্যুকে হত্যাকাণ্ড হিসেবে অভিহিত করেছে তার সংগঠন ইখওয়ানুল মুসলিমিন বা মুসলিম ব্রাদারহুড।

দখলটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মোহাম্মাদ মুরসিকে ক্রমান্বয়ে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে। গ্রেফতার ও পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদ শুরুর পর মুরসির শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকে এবং এরই ধারাবাহিকতায় তার মৃত্যু হলো। সোমবার মিশরের আদালতের মধ্যে তিনি মারা যান। 

মোহাম্মদ মুরসি ইসলামপন্থী দল ইখওয়ানুল মুসলিমিন বা মুসলিম ব্রাদারহুডের প্রথম সারির নেতা ছিলেন। ২০১২ সালে ইখওয়ানের প্রার্থী হিসেবে তিনি জনগণের ভোটের মধ্য দিয়ে মিসরের প্রথম গণতান্ত্রিক প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পান। 

এর আগে বিভিন্ন মহল থেকে জানানো হয়েছিল, কারাগারে মুরসির শারীরিক অবস্থা মোটেও ভালো নয়, কারাগারে তার মৃত্যুও হতে পারে। ডায়াবেটিস আক্রান্ত মুরসিকে পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে না বলে পরিবারের সদস্যদের পক্ষ থেকেও দাবি করা হয়েছিল।

ব্রিটিশ রাজনীতিক ও আইনজীবীদের একটি প্যানেল এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, দীর্ঘদিন ধরে অবহেলার ফলে মুরসির শারীরিক অবস্থা যে পর্যায়ে পৌঁছেছে, তাতে তিনি অকালে মারা যেতে পারেন। এসব বক্তব্যকে মোটেও গুরুত্ব দেয়নি মিশরের বর্তমান সরকার।

বিডি প্রতিদিন/১৭ জুন, ২০১৯/আরাফাত


আপনার মন্তব্য