শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর, ২০১৯ ১৬:১২
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:৪৬

আমার বাবাও বাংলাদেশ থেকে এসেছে, এনআরসি চালু হলে মুখ্যমন্ত্রীত্ব চলে যাবে: বিপ্লব

দীপক দেবনাথ, কলকাতা:

আমার বাবাও বাংলাদেশ থেকে এসেছে, এনআরসি চালু হলে মুখ্যমন্ত্রীত্ব চলে যাবে: বিপ্লব

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব বলেছেন, ‘জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে কোনো ক্ষতি হলে তবে সবার প্রথমে আমার হবে। আমার মুখ্যমন্ত্রীত্ব চলে যাবে।’ 

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরে গত শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বিপ্লব দেব এই মন্তব্য করেন। তাঁর অভিমত এনআরসি হলে গোটা ভারতবাসীর লাভ হবে। 
এনআরসি নিয়ে তার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে প্রথমেই প্রতিবেশী রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে বিপ্লব দেব জানান, ‘এনআরসি এবং নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ভালো করে পড়ে-বুঝে তারপর বক্তব্য রাখা উচিত। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পড়াশোনা করে কিছু বলেন বলে তো আমার মনে হয় না। উনি হুজুগে কথা বলেন। আমিও তো কোনো একটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। যদি নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল বা এনআরসিতে ক্ষতি হতো তবে আমিও তো চলে যাব'।

এ সময় বিপ্লব বলেন, ‘আমার পরিবারের লোক, আমার পিতাও তো বাংলাদেশ থেকে এসেছেন। ওনারও সিটিজেনশিপ কার্ড আছে। তারপর আমার জন্ম হয়েছে ত্রিপুরাতে। তাই এনআরসির ফলে যদি কোনো ক্ষতি হয়, সেক্ষেত্রে সবার আগে তো আমার মুখ্যমন্ত্রীত্ব চলে যাবে। আমি কি বেকুব নাকি যে মুখ্যমন্ত্রীত্ব চলে যাবে, আর আমি এনআরসি চালু করব?’ 

তার অভিমত, ‘এগুলো কেবলমাত্র মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য করা হচ্ছে। এনআরসি বা নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল’র ফলে ভারতের লাভ হবে কারণ আমার রাজ্যে বা দেশে কতজন লোক আছে, তাদের সঠিক ঠিকানা কি, তার সম্পূর্ণ নথি সরকারের কাছে থাকবে। আমাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত হবে।’ 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য