শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ জানুয়ারি, ২০২০ ১১:৫২
আপডেট : ২০ জানুয়ারি, ২০২০ ১২:২৪

পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবীদের এক হাত নিলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র

কবি সুবোধ সরকার জানান, "এটাই হলো বিজেপির প্রকৃত ভাষা। এবার রাজ্যের মানুষই তাদের সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেবে।"

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবীদের এক হাত নিলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র
সৌমিত্র খাঁ (ফাইল ছবি)

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (ক্যা) নিয়ে সবকিছু জানা সত্ত্বেও যারা এর বিরোধিতা করছে তারা মমতা ব্যানার্জির কুকুর ছাড়া কিছুই নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। 

রবিবার পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বসিরহাটে ক্যা- এর সমর্থনে 'অভিনন্দন যাত্রা' থেকে তৃণমূল কংগ্রেস ঘেঁষা বুদ্ধিজীবীদের এক হাত নিয়ে সৌমিত্র খাঁ বলেন, "কিছু বুদ্ধিজীবীরা নিজেদের বুদ্ধিজীবী মনে করেন। অথচ কামদুনি গণধর্ষণ নিয়ে চুপ থাকেন, পার্কস্ট্রিট গণধর্ষণের বেলায় চুপ থাকেন, তেহটটে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায়ও চুপ থাকেন-তারা তৃণমূলের কুকুর ছাড়া আর কিছুই নয়। আমরা যেমন বলতাম তেজোর কুকুর, সারা বিশ্ববাসী এটা জানে। ঠিক সে রকমই মমতা ব্যানার্জির কুকুর এই বুদ্ধিজীবীরা ক্যা- এর বিরোধিতা করছেন। তারা নিজেরাই জানেন না এই বিলে এ সম্পর্কে কী লেখা আছে।" তার অভিমত,  "এই বুদ্ধিজীবীরা জেনেও ন্যাকামি করছেন। তাই তাদেরকে মমতা ব্যানার্জির কুকুর ছাড়া আর কিছু বলার নেই।"  

বিজেপি ঘেঁষা বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে বিজেপি সাংসদকে প্রশ্ন করা হলে সৌমিত্র বলেন, "আপনারা কাকে বুদ্ধিজীবী বলছেন? পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার কয়েকজন বুদ্ধিজীবীরাই কি পশ্চিমবঙ্গের শেষ কথা? আমাদের বিষ্ণুপুর লোকসভা, বসিরহাট লোকসভা থেকে শুরু করে গোটা পশ্চিমবঙ্গে অনেক বুদ্ধিজীবী আছেন। কয়েকজন লিখেছেন, আর কলকাতায় যারা বলছেন তারাই কি শুধু বুদ্ধিজীবী? তারা নেকাজিবি, তারা পশ্চিমবঙ্গের কুত্তা।" 

তার অভিমত, "পেছনে মিডিয়া না দিয়ে ওদেরকে রাস্তায় ছেড়ে দেওয়া হোক, দেখা যাবে তাদের কয়জনে চেনে। তাদের ক'টা বই পশ্চিমবঙ্গের মানুষ পড়ছেন।" 

এ নিয়ে সাহিত্য একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত বিশিষ্ট কবি সুবোধ সরকার জানান, "এটাই হলো বিজেপির প্রকৃত ভাষা। এবার রাজ্যের মানুষই তাদের সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেবে।"


বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য