শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৮ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ মে, ২০২১ ২৩:৪১

কুমিল্লা-৫ উপনির্বাচন

আওয়ামী লীগে মনোনয়ন প্রত্যাশী বাড়ছে, কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে বিএনপি

মহিউদ্দিন মোল্লা, কুমিল্লা

Google News

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) নির্বাচনী এলাকা। শূন্য আসনে নির্বাচন করতে ইতিমধ্যে দুই ডজনের বেশি মনোনয়নপ্রত্যাশী নিজেদের জানান দিচ্ছেন বিভিন্ন কৌশলে। প্রতিদিনই বাড়ছে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংখ্যা। অপরদিকে বিএনপির প্রার্থীরা বসে আছেন কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায়।

আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান মিঠু আলোচনায় রয়েছেন। তিনি দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। অন্য মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হচ্ছেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ও বুড়িচং উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মো. সাজ্জাদ হোসেন, সোনার বাংলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু সালেক মোহাম্মদ সেলিম রেজা সৌরভ, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুছ ছালাম বেগ, আবদুল মতিন খসরুর স্ত্রী সেলিমা সোবহান খসরু, মতিন খসরুর ভাই কুমিল্লা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল মমিন ফেরদৌস, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক দিদার মো. নিজামুল ইসলাম, বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আল-আমিন, পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী চৌধুরী মানিক ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক এহতেশামুল হাসান ভুঁইয়া রুমি প্রমুখের নাম শোনা যাচ্ছে।

অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান মিঠু বলেন, কুমিল্লা-৫ আসনের মানুষ চান আমি নির্বাচন করি। দল মনোনয়ন দিলে আমি নির্বাচন করব। সাজ্জাদ হোসেন বলেন, মাঠে দিনরাত পরিশ্রম করে দলের ঐক্য তৈরি করেছি। দল যদি মনোনয়ন দেয় অবশ্যই নির্বাচন করব। দলের বাইরে কোনো সিদ্ধান্ত নেব না। অধ্যক্ষ আবু সালেক মো. সেলিম রেজা সৌরভ বলেন, দলের নেতা-কর্মীরা নির্বাচন করার জন্য অনুরোধ করছেন। কেন্দ্রীয় নেতারা আমার বিষয়ে খুবই ইতিবাচক। মনোনয়ন পেলে অবশ্যই গণমানুষের সঙ্গে থাকব।

আবদুছ ছালাম বেগ বলেন, আবদুল মতিন খসরুর অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে দলের মনোনয়ন চাইব।

এদিকে কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া সংসদীয় আসনের বিএনপির নেতা-কর্মীরা। কারণ, বিএনপি নির্বাচনে যাবে কিনা তা অনিশ্চিত। বিএনপির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দল নির্বাচনে গেলে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও ২০০৮ সালের নির্বাচনের এই আসনের প্রার্থী এস এম আলাউদ্দিন এবং কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন মনোনয়ন চাইতে পারেন।

এ বিষয়ে এস এম আলাউদ্দিন বলেন, দল নির্বাচনে গেলে ও সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত হলে উপনির্বাচনে অংশ নেব।

জসিম উদ্দিন বলেন, ২৪ বছর ধরে কুমিল্লা-৫ নির্বাচনী এলাকায় রাজনীতি করছি। দল যদি নির্বাচনে যায় তাহলে অবশ্যই মনোনয়ন চাইব। ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক দিদার নিজামুল ইসলাম বলেন, তারুণ্য উদ্দীপ্ত রাজনীতি করে আসছি দীর্ঘদিন। মনোনয়ন চাইব।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আসন শূন্য ঘোষণা হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে উপনির্বাচনের নিয়ম রয়েছে। তবে বিশেষ কারণে তার পরের ৯০ দিনের মধ্যে সম্পন্ন করতে হয়। আমরা নির্বাচন নিয়ে এখনো কোনো নির্দেশনা পাইনি।

এই বিভাগের আরও খবর