Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৩

বিনিয়োগ কোম্পানিতে জালিয়াতির অভিযোগ

আগ্রহী প্রবাসীরা হতভম্ব

প্রতিদিন ডেস্ক

বিনিয়োগ কোম্পানিতে জালিয়াতির অভিযোগ

বাংলাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্যে আগ্রহী প্রবাসীরা হতভম্ব হয়ে পড়েছেন কোম্পানি রেজিস্ট্রেশনে জালিয়াতির সংবাদে। বিনিয়োগে আগ্রহী প্রবাসীদের শেয়ার সাবক্রিপশনের টাকা প্রদানের প্রমাণস্বরূপ ‘অ্যানক্যাশমেন্ট সার্টিফিকেট’ দিতে হয় জয়েন্ট স্টক কোম্পানিতে। বিদেশিদের পার্টনারশিপের কোম্পানি রেজিস্ট্রেশনে এটি হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের কতিপয় প্রবাসী ‘এবি হাইটেক কনসোর্টিয়াম লিমিটেড’ নামে একটি বহুজাতিক কোম্পানির রেজিস্ট্রেশন করতে ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের যে সার্টিফিকেট প্রদান করেছে তা নাকি জাল। এ ব্যাপারে ওই কোম্পানির প্রকৃত প্রস্তাবকরা জয়েন্ট স্টক কোম্পানির রেজিস্ট্রারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং তাকে ওই জালিয়াতির অভিযোগ করা হয়। এরপরই জয়েন্ট স্টক কোম্পানির আরজেএসসি/৩৪২, তারিখ-১৬ সেপ্টেম্বর-২০১৮, স্মারকের একটি পত্র দেওয়া হয় ডাচ্-বাংলা ব্যাংককে। এর পরদিনই ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের পক্ষ থেকে (স্মারক নম্বর ডিবিবিএল/১০৭/০৯/২০১৮/৫১২৪) সহকারী রেজিস্ট্রারকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে, ‘গত বছরের ১৩ জুন ২৬০০ ডলারের যে অ্যানক্যাশমেন্ট সার্টিফিকেট (ডিবিবিএল/১০৭/০৬/২০১৭/২৫৯৭) এবি হাইটেক কনসোর্টিয়াম লিমিটিডের পক্ষে আপনার সমীপে সাবমিট করা হয়েছে, আমাদের অফিসের রেকর্ড অনুযায়ী সেটি ইস্যু করা হয়নি।’ অর্থাৎ সেটি জাল সার্টিফিকেট। খবর এনআরবি নিউজের।

একই ব্যাপারে এ বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর কথিত এবি হাইটেক কনসোর্টিয়াম লিমিটেডের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর এবং পরিচালক ফজলুর রহমান মোল্লাকে (যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট) ঢাকাস্থ কাওরানবাজারে টিসিবি ভবনে অবস্থিত যৌথ মূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের নিবন্ধনের কার্যালয় থেকে এক পত্র (সূত্র-আরজেএসসি ডায়রি নং-২২১০০, ২২০৯২, ২১৯৯৮) দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক একজন সভাপতি, দফতর সম্পাদকসহ আরও কয়েকজনের নাম রয়েছে এবি হাইটেক কনসোর্টিয়াম লিমিটেড নামক ওই কোম্পানিতে। বাংলাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্যে আগ্রহী রাজনীতিকদের সমন্বয়ে এমন একটি বড়মাপের কোম্পানি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার সংবাদে আগে যেমন দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে স্বস্তি আর আনন্দের নহর বইছিল, কোম্পানি গঠনে জালিয়াতির সংবাদে এখন সবাই ভীতশ্রদ্ধ, হতভম্ব। নাম গোপন রাখার শর্তে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী পরিবারের নেতৃস্থানীয়রা মন্তব্য করেছেন, জালিয়াতির তথ্য যদি সত্য হয় তাহলে ভবিষ্যতে রাজনীতি করার সুবাদে আর কারোর ভাগ্য প্রসন্ন হওয়ার পথ রুদ্ধ হয়ে পড়বে।


আপনার মন্তব্য