শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ এপ্রিল, ২০২১ ২২:০৪

ভিন্ন খবর

ঝাড়বাতির সঙ্গে বিয়ে

শনিবারের সকাল ডেস্ক

ঝাড়বাতির সঙ্গে বিয়ে

বিশ্বজুড়ে বিয়ে একটি সামাজিক প্রথা। জীবন সঙ্গী বেছে নিতেই সাধারণত বিয়ে করা হয়। কিন্তু ‘যস্মিন দেশে যদাচার’ বলে একটা কথা রয়েছে। এসব কথা তো আর এমনি এমনি তৈরি হয়নি। এক দেশে যেটা রীতিমতো আবশ্যকীয় কাজ, সেটাই  আরেক দেশে রীতিমতো অপরাধ! পৃথিবীর প্রতিটি দেশেই বিয়ের ক্ষেত্রে বিশেষ কিছু নিয়মকানুন অনুসরণ করা হয়। এক্ষেত্রে এক দেশের কায়দার সঙ্গে অন্য দেশের কায়দা একদমই মেলে না। একই সঙ্গে কিছু কিছু দেশ আছে যাদের বিয়ের রীতিনীতি একেবারেই অদ্ভুত। এসব নিয়ম শুনলে হয়তো হাসি পাবে, আবার রীতিমতো আক্কেল গুড়ুমও হয়ে যেতে পারে। গাছ, কুকুর, সেক্সডল এমনকি মৃত আত্মাকেও বিয়ের নজির রয়েছে। এবার ৯৩ বছর পুরনো ঝাড়বাতির সঙ্গে বিয়ের ঘোষণা দিয়েছেন আমান্ডা নামের এক ব্রিটিশ নারী। চ্যানেল ফোরের ‘স্টেফস প্যাকড লাঞ্চ’ নামের এক অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন আমান্ডা। সেখানেই বিভিন্ন বস্তুর প্রতি প্রেমের কথা জানান তিনি। এরপর ‘লুমিনেরে’ নামের এই ঝাড়বাতির সঙ্গে বিয়ের ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ‘জড় বস্তুগুলো শুধু এক জায়গায় ঠাঁয় বসে রয়েছে তা কিন্তু নয়। তাদের মধ্যে এক ধরনের বিশেষ এনার্জি রয়েছে। এটি আপনাকে অনুভব করতে হবে। আমি এটি অনুভব করেছি এবং প্রেমে পড়েছি। এটি শুধু এই ঝাড়বাতির ক্ষেত্রে নয়, আগেও আমি এমনটা অনুভব করেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার বিষয়টি বুঝতে অনেক সময় লেগেছে। এটি ঠিকমতো বুঝতে না পারলেও মেনে নিয়েছি। বিষয়টি বোঝানো অনেক কঠিন। কারণ আমি নিজেও জানি না কেন বস্তুর প্রেমে পড়ি। এর ব্যাখ্যা দিতে পারব না। শুধু এগুলোর প্রতি ভালোবাসা অনুভব করি। অন্যরকম এক টান কাজ করে। বোঝাতে পারব না। আমার মনে হয়, এগুলো কত সুন্দর।’ তবে মজার বিষয় হলো, এর আগে স্ট্যাচু অব লিবার্টির প্রেমে পড়েছিলেন আমান্ডা। এ জন্য নামের সঙ্গে লিবার্টি জড়িয়ে আমান্ডা লিবার্টিও রেখেছেন।