Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০৯:৫১
আপডেট : ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:১৬

রাতে মেয়রকে নিয়ে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ঘুরে দেখলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট:

রাতে মেয়রকে নিয়ে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ঘুরে দেখলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

গভীর রাত। রাস্তাঘাট ফাঁকা। মাঝে মধ্যে গাড়ির হর্ণ চেষ্টা করছে রাতের নিরবতা ভাঙার। আবছা আলোয় রাস্তায় হাঁটছেন ৮-১০ জন মানুষ। থেমে থেমে তাকাচ্ছেন এদিক-ওদিক। গত শুক্রবার রাতে সিলেট নগরীর এই নিশাচর দলের নেতৃত্বে ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ও সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। শেষ রাত পর্যন্ত ঘুরে ঘুরে দুইজন প্রতিনিধি দেখেছেন সিলেট নগরীর চলমান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড। হাঁটতে হাঁটতে কিছু পরিকল্পনাও করেছেন আগামীর উন্নয়নের। 

গত শুক্রবার সন্ধ্যা পৌণে ৬টায় সিলেট আসেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। মধ্যরাত পর্যন্ত নগরীর ধোপাদিঘীরপাড়স্থ বাসায় ছিল নেতাকর্মীদের ভিড়। নেতাকর্মীদের বিদায় দিয়ে রাত দেড়টার দিকে বের হন বাসা থেকে। ফোন দেন সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে। রাস্তায় দেখা দু’জনের। গাড়ি থেকে নেমে পড়েন দুই জনপ্রতিনিধি। হেঁটে হেঁটে শুরু করেন নগরীর উন্নয়ন পরিদর্শন। জিন্দাবাজারে মেয়র সড়ক সম্প্রসারণ, আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎ লাইনের কাজের অগ্রগতি দেখান পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে। এরপর চৌহাট্টায় গিয়ে আরও কিছু উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেন দুই জনপ্রতিনিধি। 

চৌহাট্টা থেকে মোমেন-আরিফ অগ্রসর হন দরগাগেইটের দিকে। সেখানে গিয়ে রাস্তা সম্প্রসারণসহ আরও কিছু  উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেন। হাঁটতে হাঁটতে ড. মোমেন ও আরিফুল হক সিলেট নগরীর উন্নয়ন নিয়ে আরও কিছু পরিকল্পনা করেন। এসময় মেয়র আরিফ সিলেট নগরীর উন্নয়নে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহযোগিতা চান। 
পররাষ্ট্রমন্ত্রীও সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেটের উন্নয়নের ব্যাপারে খুবই আন্তরিক। উন্নয়নের ক্ষেত্রে তিনি সিলেটকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। তবে উন্নয়ন কাজে যাতে কেউ অনিয়ম দুর্নীতি করতে না পারে সে ব্যাপারেও সিটি করপোরেশনকে কড়া নজর রাখার নির্দেশ দেন তিনি। 

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান, সিটি কাউন্সিলর শওকত আমীন তৌহিদ, খাদিমপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান এডভোকেট আফছর আহমদ প্রমুখ।

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা/হিমেল


আপনার মন্তব্য