Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:৫৪

‘সর্বক্ষেত্রে দেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিচ্ছে সরকার’

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

‘সর্বক্ষেত্রে দেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিচ্ছে সরকার’

বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, সরকার সর্বক্ষেত্রে দেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিচ্ছে। তারা রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান করতে পারছে না। কারণ তাদের সেই বৈধতা ও সাহস নেই। তাদের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে পারছে না। দুুই বছরে একজন রোহিঙ্গাকেও তারা ফেরত পাঠাতে পারেনি।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে নূর আহমদ সড়কে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া খুবই অসুস্থ। তাকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। এটা মধ্যযুগীয় বর্বরতার সামিল। ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে বর্তমান সরকার একজন নিরপরাধ মানুষের সঙ্গে জুলুম করে যাচ্ছে বছরের পর বছর। অবিলম্বে তাকে মুক্তি দিতে হবে।

তিনি বলেন, আসামে নাগরিকপঞ্জির নামে গভীর চক্রান্ত চলছে। নাগরিকপঞ্জির নামে দেশকে বিপদগ্রস্ত করতে গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আজ হুমকির সম্মুখীন। তাই দেশের জনগণকে সতর্ক থাকতে হবে অতন্দ্র প্রহরীর মতো।

মানববন্ধনে নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, দেশে খুনি, সন্ত্রাসী, ধর্ষণকারী, মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ীর জামিন হলেও বেগম খালেদা জিয়ার জামিন হয় না। তিনি গুরুতর অসুস্থ, ঠিকমত চলাফেরা করতে পারছেন না। সরকার তার জামিন দেয়া তো দূরের কথা চিকিৎসারও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না। তারা আদলতকে ব্যবহার করে বার বার তার জামিন প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করে যাচ্ছে।

আবুল হাশেম বক্কর প্রশ্ন করেন বেগম খালেদা জিয়া কি খুনি? হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎকারী? মাদক ব্যবসায়ীদের চেয়ে বেশি অপরাধ করেছে? আসলে বেগম খালেদা জিয়া কোন অপরাধ করেননি। তার অপরাধ তিনি দেশের মানুষের অধিকার ও ভোট চুরির বিরুদ্ধে কথা বলেন। সরকার জানে বেগম জিয়া যেদিন মুক্তি পাবে সেদিন তাদের অবৈধ ক্ষমতা তাসের ঘরের মত উড়ে যাবে।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে আদালতকে প্রভাবিত করে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি বিলম্বিত করা হচ্ছে। এজন্য জনগণকে সাথে নিয়ে রাজপথে আন্দোলন করতে হবে এবং নেত্রীকে মুক্ত করতে হবে।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম’র পরিচালনায় মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, কেন্দ্রীয় বিএনপির শ্রমবিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এম এ আজিজ, সামছুল আলম, এস এম অবুল ফয়েজ, যুগ্ম সম্পাদক কাজী বেলাল উদ্দিন, ইসকান্দর মির্জা, আর ইউ চৌধুরী শাহীন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আবদুল মান্নান, আনোয়ার হোসেন লিপু, শাহেদ বক্স, ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও বিএনপি নেত্রী মনোয়ারা বেগম মনি, হামিদ হোসেন প্রমুখ।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য