শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৭ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ আগস্ট, ২০১৯ ০২:২৩

প্রয়াণ দিবসে রবীন্দ্র-স্মরণ

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

প্রয়াণ দিবসে রবীন্দ্র-স্মরণ
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে গতকাল রাজধানীতে নানা কর্মসূচি পালিত হয়। -বাংলাদেশ প্রতিদিন

বাংলা ১৩৪৮। ওই বছরের ২২ শ্রাবণ মৃত্যুকে বরণ করেন বাংলা সাহিত্যের দিকপাল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তাঁর চলে যাওয়ায় এক অপূরণীয় ক্ষতি হয় বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতির। গতকাল ছিল কবির ৭৯তম প্রয়াণ দিবস। আলোচনা, নাচ, গান, গীতিনাট্য, কাব্যনাট্য, আবৃত্তিসহ নানা বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রয়াণ দিবসে কবিকে স্মরণ করেছে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন। বাংলা একাডেমি : একক বক্তৃতা ও সাংস্কৃতিক আয়োজনের মধ্য দিয়ে রবীন্দ্রনাথের প্রয়াণ দিবস পালন করেছে বাংলা একাডেমি। বিকালে একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষের এ আয়োজনে ‘রবীন্দ্রজীবনে ১৯১৯ : তাৎপর্যপূর্ণ একটি বছর উপনিবেশবাদের বিরুদ্ধে স্পষ্ট ও সাহসী অবস্থান’ শীর্ষক একক বক্তৃতা প্রদান করেন অধ্যাপক সৈয়দ আজিজুল হক। জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে এতে স্বাগত বক্তব্য দেন একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। উপস্থিত ছিলেন ড. মালেকা বেগম, পশ্চিমবঙ্গের গবেষক শক্তিসাধন মুখোপাধ্যায়, কবি লিলি হক প্রমুখ।

সবশেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবির কবিতা আবৃত্তি করেন ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রবীন্দ্রসংগীত পরিবেশন করেন মহিউজ্জামান চৌধুরী ও অণিমা রায়।

ছায়ানট : কাব্যনাট্য, গীতিনাট্য ও আলোচনার মধ্য দিয়ে প্রয়াণ দিবসে কবিগুরুকে স্মরণ করেছে সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ছায়ানট। গতকাল সন্ধ্যায় ছায়ানট মিলনায়তনের এ আয়োজনের শুরুতেই কবিগুরুর প্রবন্ধ ও কবিতার সংকলন ‘আমি তোমায় ছাড়ব না মা’ থেকে দলীয় আবৃত্তি করে বাচিক সংগঠন কণ্ঠশীলন। এরপর সংগঠনটি পরিবেশন করে কাব্যনাট্য ‘কর্ণ-কুন্তী সংবাদ’। পরে ‘শ্যামা’ পরিবেশন করেন আয়োজক প্রতিষ্ঠান ছায়ানটের শিল্পীরা। শিল্পীদের সঙ্গে তবলায় সংগত করেন সুবীর ঘোষ, সেতারে ফিরোজ খান, এসরাজে অসিত বিশ্বাস, কিবোর্ডে রবিন্স চৌধুরী ও মন্দিরায় প্রদীপ কুমার রায়।

কণ্ঠশীলন : আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রয়াণ দিবসে রবীন্দ্রনাথকে স্মরণ করেছে সাংস্কৃতিক সংগঠন কণ্ঠশীলন। সংগঠনটির কার্যালয়ের ওয়াহিদুল হক মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় ‘জয় মৃত্যুঞ্জয়ের জয়’ শীর্ষক এ আয়োজন। কবির কবিতা, গান ও কথামালায় সাজানো ছিল অনুষ্ঠান। শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য দেন কণ্ঠশীলন অধ্যক্ষ মীর বরকত। বক্তৃতা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. তারিক মনজুর ও সংগঠনটির সভাপতি গোলাম সারোয়ার। আবৃত্তি করেন রইস উল ইসলাম, মোস্তফা কামাল, আহমাদুল হাসান হাসনু, ইলা রহমান, নুরুজ্জামান নান্নু, অনন্যা গোস্বামী।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর