শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ মার্চ, ২০২০ ২৩:৩২

জাপা ছাড়ছেন রাজশাহীর ত্যাগী নেতা-কর্মীরা!

বর্তমান শীর্ষ নেতৃত্বের প্রতি অনাস্থার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

জাতীয় পার্টির (জাপা) কমিটিতে এখন কারা আছেন- এমন প্রশ্ন রাখতেই দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহীনুল ইসলাম জানালেন, ‘এখন কমিটি একটা জটিল পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে। কারা যেন কমিটি নিয়ে এসেছেন। কিন্তু কাগজ দেখাতে পারেননি তারা। কেন্দ্রও কিছু বলছে না। কমিটি নিয়ে মনে হয় একটা গরমিল আছে।’  শুধু এই নেতা নন, জাপার বেশিরভাগ নেতা-কর্মী জানেন না কারা নতুন কমিটিতে ঠাঁই পেয়েছেন। এই অবস্থায় যারা দীর্ঘ সময় জাপার নেতৃত্ব দিয়েছেন, তারা দল ছেড়েছেন। চলতি বছরের শুরুতে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক দল ছাড়েন। এর ধারাবাহিকতায় উপজেলা পর্যায়ের নেতা-কর্মীরাও দল ছাড়তে শুরু করেছেন। আগে থেকেই খর্ব শক্তির জাপা এবার আরও ক্ষয়িঞ্চু। পার্টি সূত্রে জানা যায়, গত ২০ জানুয়ারি জাপা ছাড়ার ঘোষণা দেন রাজশাহী মহানগরের সভাপতি শাহাবুদ্দিন বাচ্চু। ৩১ জানুয়ারি দল ছাড়ার ঘোষণা দেন সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান ডালিমসহ ৫ শতাধিক নেতা-কর্মী। গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে তারা দল ছাড়ার ঘোষণা দেন। গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে মোস্তাফিজুর রহমান ডালিম বলেন, ‘আমি রাজশাহী মহানগর জাপার সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করছি। প্রায় ৩০ বছর ধরে জাপার সঙ্গে যুক্ত। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আদর্শ থেকে বিচ্যুতি হওয়া, ত্যাগীদের অবমূল্যায়ন, সাংগঠনিক অদক্ষতাসহ বিভিন্ন অনিয়মের কারণে সব পদ-পদবি থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বর্তমান চেয়ারম্যানের আশপাশে যারা আছেন তারা অর্থ বাণিজ্যের মাধ্যমে অযোগ্যদের পদায়ন করে পার্টির ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুণ্ন করছেন।

গত নির্বাচনে যে ব্যক্তি আম মার্কা প্রতীকে রাজশাহী সদর আসনে নির্বাচনে অংশ নিয়ে ৫০ ভোট পায়নি, তাকে বানানো হয়েছে কেন্দ্রের ভাইস চেয়ারম্যান। যা রাজশাহীর রাজনীতিতে হঠকারিতা ছাড়া আর কিছুই নয়। আমরা যারা নিজেদের অর্থ মেধাশ্রম দিয়ে পল্লী বন্ধু এরশাদের আদর্শ বাস্তবায়ন করতে দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করেছি, তাদের অবমূল্যায়ন করে জাপাকে ধ্বংসের পাঁয়তারা করায় আমরা গণপদত্যাগ করছি।’

গণপদত্যাগে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন জাপার সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মমতাজ উদ্দিন বাবু, শাহাবুদ্দিন, এফ এম বাশারুজ্জামান হীরা, এনামুল হক, মাসুদুল ইসলাম বাবু, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

২০ জানুয়ারি জাপা ছাড়ার ঘোষণা দেন দলটির রাজশাহী মহানগরের সভাপতি শাহাবুদ্দিন বাচ্চু। বর্তমানে বাচ্চু যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। তিনি সে দেশের নাগরিকও। যুক্তরাষ্ট্র জাপার উপদেষ্টাও তিনি।

গণমাধ্যমে পাঠানো মুঠোফোনের খুদেবার্তায় শাহাবুদ্দিন বাচ্চু বলেন, ‘আমি রাজশাহী মহানগর জাপার সভাপতি ও যুক্তরাষ্ট্র জাপার উপদেষ্টা পদ থেকে পদত্যাগ করছি। আমি দীর্ঘ প্রায় ৩০ বছর ধরে জাপার সঙ্গে যুক্ত।’

তিনি লেখেন, ‘বর্তমানে পার্টির ভিতরে কোনো প্রকার সমন্বয় নেই। এ ছাড়া পার্টির বর্তমান চেয়ারম্যানের স্বজনপ্রীতি, এরশাদের আদর্শ থেকে বিচ্যুতি হওয়া, ত্যাগীদের অবমূল্যায়ন, সাংগঠনিকভাবে অদক্ষতাসহ বিভিন্ন অনিয়মের কারণে সব পদ-পদবি থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

হঠাৎ করেই নেতা-কর্মীদের দল ত্যাগের বিষয়টিকে হতাশাজনকভাবেই দেখছেন জেলা সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন। তিনি জানান, ২০০৮ সালের পর থেকে একরকম লাঙ্গল ছাড়া রাজশাহী। যার প্রভাব পড়ছে তৃণমূলে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর