শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ মার্চ, ২০২১ ০১:৩৭

আওয়ামী লীগ কখনো ভাসানীর নাম উচ্চারণ করে না : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগ কখনো ভাসানীর নাম উচ্চারণ করে না : ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পাকিস্তান হওয়ার পরে মওলানা ভাসানীর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। সেই আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি ছিলেন মওলানা ভাসানী। কিন্তু তারা কখনোই তাদের দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির নামটি পর্যন্ত উচ্চারণ করে না। একবারের জন্যও আওয়ামী লীগের কোনো নেতা আজকে তাঁর নাম উচ্চারণ করেননি। আওয়ামী লীগ মনে করে একটি ভাষণই স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে কেন্দ্রীয় বিএনপির এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে বছরব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে দলটি এ সভার আয়োজন করে।

 

 

দলের স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার ও শিক্ষাবিদ ড. মাহবুব উল্লাহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, কাউকে ছোট করার জন্য নয়, কোনো নেতাকে ছোট করার জন্য নয়, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধে যার যা অবদান আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে তা তুলে ধরতে চাই। এটাই আমাদের একমাত্র উদ্দেশ্য।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, মওলানা ভাসানী একজন ম্যাজিক্যাল নেতা ছিলেন। তিনি আজীবন খেটে খাওয়া মানুষের জন্য আন্দোলন করেছেন। আর যারা দিনের পর দিন এদেশের মানুষের স্বাধীনতা অর্জনের জন্য লড়াই করে গেছেন, আত্মত্যাগ করেছেন তাদেরকে আমরা ভুলে যাই, স্মরণ করি না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘শহীদ প্রেসিডেন্ট’ জিয়াউর রহমানের খেতাব তুলে নেওয়ার সঙ্গে কিছু যায় আসে না। শহীদ জিয়া এদেশের মানুষের হৃদয়ে আছেন এবং থাকবেন।

এই বিভাগের আরও খবর