২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ১৪:৫৩

দ্রুত করোনা ছড়াচ্ছে ফরিদপুরে, শনাক্তের হার ৪৭ শতাংশ

ফরিদপুর প্রতিনিধি

দ্রুত করোনা ছড়াচ্ছে ফরিদপুরে, শনাক্তের হার ৪৭ শতাংশ

ফরিদপুর জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত গতিতে বাড়ছে। গত সপ্তাহে যেখানে করোনায় আক্রান্ত ছিল মাত্র ৫ জন। সেখানে আজ রবিবার দুপুর পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১২৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭০টি নমুনা পরীক্ষায় ৮০ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। শনাক্তের হার ৪৭.০৬%। যা বিগত কয়েক মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ।

ফরিদপুর জেলার ৯টি উপজেলার মধ্যে শনাক্তের দিক দিয়ে সদর উপজেলায় আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৪২৭ জন। জেলা সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, প্রতিদিনই শনাক্তের হার বাড়ছে দ্রুতগতিতে। করোনায় আক্রান্তের রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়ছে। ওমিক্রন থেকে রক্ষা পেতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা কিংবা স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণেই জেলায় আক্রান্তের হার বাড়ছে বলে মনে করছেন সচেতন মহল।

ফরিদপুরের বিভিন্ন হাট-বাজার, শপিংমলসহ বিভিন্ন জনসমাগম স্থানগুলোতে বেশির ভাগ মানুষের মুখেই নেই মাস্ক। কেউই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাফেরা করছেন না। স্বাস্থ্যবিধি না মানার বিষয়ে প্রশাসনের কম নজরদারির কথা বলছেন অনেকেই। বিগত দিনে করোনা সচেতনতায় প্রশাসনের তরফ থেকে নানা উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছিল। 

এদিকে সরকারি বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করে কোচিং সেন্টার চালু, বিভিন্ন টুর্নামেন্টের আয়োজন, বিয়ে, পিকনিকসহ নানা সামাজিক অনুষ্ঠান হচ্ছে প্রতিনিয়ত। হোটেল রেস্তোরা গুলোতে টিকা সনদ না নিয়েই চলছে লোকজনদের খাওয়া দাওয়া। শহরের মার্কেট ও বিপণী বিতান গুলোতে মাস্ক পরে প্রবেশের যে নিয়ম রয়েছে তা মানছেন না ব্যবসায়ী কিংবা ক্রেতারা। কাঁচা বাজার, মাছ বাজারগুলোতেও উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি। ফলে করোনার হার আশংকাজনক হারে বেড়েই চলেছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. ছিদ্দিকুর রহমান জানান, স্বাস্থ্যবিধি পুরোপুরি না মানার কারণেই করোনার হার বাড়ছে। তিনি সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান। 

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর