শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ২২:২৬

কুষ্টিয়ায় বেশি দামে লবণ বিক্রির দায়ে ২১ ব্যবসায়ীকে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় বেশি দামে লবণ বিক্রির দায়ে ২১ ব্যবসায়ীকে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা

কুষ্টিয়ায় লবণের গুজব ঠেকাতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে চালানো হচ্ছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে এক লাখ ৩১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করছে প্রশাসন। 
সেই সাথে মসজিদে মসজিদে মাইকিং এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে সতর্ক করে দেওয়া হচ্ছে। 

ভেড়ামারায় বেশি দামে লবণ বিক্রির দায়ে জুলহাস ও বাবু নামে দুই ব্যবসায়ীকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার কুচিয়ামোড়া বাজারে পরিচালিত এ ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। দুই লবণ ব্যবসায়ীর প্রত্যেককে ১০ হাজার (দশ) করে মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

দৌলতপুরে লবনের দাম বেশি নেওয়ার অভিযোগে ৬ ব্যবসায়ীকে ২৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এদের ভিতর দৌলতপুর থানা বাজার এলাকায় দুই জন, আল্লারদর্গা বাজারে দুইজন ও রিফায়েত পুর বাজারে একজনকে জরিমানা করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত এ জরিমানা করেন। এ ছাড়া দৌলতপুরে লবণ সংকটের গুজবে কান না দিতে জনসাধারণের উদ্দেশ্যে মাইকিং করা হচ্ছে। 
 
কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী কুষ্টিয়া শহরে লবনের দাম বেশি নেওয়ায় ৫ ব্যবসায়ীকে ৬২ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। 

কুমারখালীতে লবণের দাম বেশি নেওয়ায় ৪ চার ব্যবসায়ীর প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল ইসলাম খাঁনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

খোকসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী জেরিন কান্তার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত খোকসা বাজারে লবণের দাম বেশি নেওয়ায় দু’ব্যবসায়ীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।

মিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার লিংকন বিশ্বাসের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত মিরপুরের পোড়াদহ বাজারে লবণের দাম বেশি নেওয়ায় দুই ব্যবসায়ীকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে।

এসব অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্ব-স্ব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ। 

এছাড়া লবণ নিয়ে গুজবে কান না দিতে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন। তিনি বলেন, “কুষ্টিয়া জেলায় লবণের কোনো ঘাটতি নেই, লবণ নিয়ে কোন গুজব বা কারসাজি করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য