২৪ মে, ২০২২ ১৯:২৬

কুড়িগ্রামে পানিতে নিমজ্জিত ২৬৫ হেক্টর জমির বোরো ধান

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামে পানিতে নিমজ্জিত ২৬৫ হেক্টর জমির বোরো ধান

কুড়িগ্রামে পানিতে নিমজ্জিত ২৬৫ হেক্টর জমির বোরো ধান

গত এক সপ্তাহ ধরে অবিরাম বর্ষণে কুড়িগ্রামে প্রধান নদ-নদীর পানি বেড়ে গেছে। ফলে এসব নদী তীরের নিম্নাঞ্চলগুলোর কিছু কিছু জায়গায় তলিয়ে গেছে সদ্য উঠতি বোরো ধান। কৃষকরা দ্রুত সেসব ধান কেটে নিচ্ছেন। অনেকেই কাঁচা ধান বাধ্য হয়ে কেটে গরুকে খাওয়ানোর জন্য নিয়ে যাচ্ছেন।

সদর উপজেলার পাঁচগাছী ইউনিয়ন ও মোগলবাসা এলাকার ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের অববাহিকার কিছু চরাঞ্চলে ধান ক্ষেত তলিয়ে যাওয়ায় কৃষকরা পড়েছেন চরম বিপাকে। কয়েকদিনের টানা বর্ষণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে কৃষকরা জানিয়েছেন।

ফলে মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন এ অঞ্চলের কৃষকরা। ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের অববাহিকার কৃষকরা অনেকের ক্ষেতে হাঁটু পানি কোথাও কোমর পানিতে নেমে আধা কাঁচাসহ পচা ধান কাটছেন। বোরো ধানের আশানুরূপ ফসল ঘরে তোলার স্বপ্ন থাকলেও ভারী বৃষ্টিপাত সেই স্বপ্ন ম্লান করে দিয়েছে। তবে কয়েকদিনের মধ্যে পানি কমলে কিছুটা ক্ষতির পরিমাণ কমবে বলে স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানিয়েছে।

কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, নদ-নদীর এসব নিম্নাঞ্চলে এবছর ১ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে বোরোর আবাদ হয়েছে। তবে ২৬৫ হেক্টর জমির বোরো আবাদের প্রায় ৬০ ভাগ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এখন পর্যন্ত জেলায় শতকরা ৯০ ভাগ বোরো ধান কর্তন করা হয়েছে বলে কৃষি বিভাগ জানায়।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আব্দুর রশীদ জানান, এখনো তেমন ক্ষতির সম্ভাবনা নেই। তলিয়ে যাওয়া বোরো ধান অনেক কৃষক কেটে নিয়েছেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর