২৮ মে, ২০২২ ২০:৪০

বাড়ির শিশুদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মাদারীপুরে ডাকাতি

মাদারীপুর প্রতিনিধি

বাড়ির শিশুদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মাদারীপুরে ডাকাতি

মাদারীপুরে সাবেক এক অধ্যক্ষের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা পরিবারের শিশুদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। শনিবার (২৮ মে) ভোররাতে সদর উপজেলার ঘটমাঝিতে ইউনিয়নের ঝিকরহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ঢাকার সাবেক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও খুলনা বিএল কলেজ ও মাদারীপুর সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দ সাদিক জাহিদুল ইসলাম শারিরিকভাবে অসুস্থ থাকায় ঢাকা চিকিসাধীন। এছাড়া তার তিন ছেলে চাকরির সুবাধে ঢাকা ও চট্টগ্রামে কর্মরত। বাড়িতে তার অসুস্থ স্ত্রী, ২ গৃহবধূ ও নাতি-নাতিনরা বসবাস করে। এই সুযোগে ডাকাতরা ভোররাতে প্রথমে বাসার পেছনের রান্নাঘরের গ্রিল কেটে ভেতরে ঢুকে। পরে কলাসিবল গেটের তালা ভেঙে ঘরের ভেতর প্রবেশ করে ৬ জন মুখোসধারী ডাকাত। পরে শিশুদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ঘরে থাকা ৪৫ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা, ও ৩ টি মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী পরিবারের। 

গৃহবধূ ইসরাত জাহান তন্নি বলেন, প্রথমে রান্না ঘরের গ্রিল কেটে ভেতরে ঢুকে। পরে পাশের রুমে থাকা মামাতো ভাই লিয়নকে মুখ ও হাত- পা বাঁধে। আমাদের রুমে ৬ জন ডাকাত একসাথে ধ্বাক্কা দিয়ে আমাদের রুমের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে। আমাদের বাচ্চাদের গলায় দা ধরে আমাদের বাধ্য করে ৪৫ ভরি সোনা ও আমার শাশুড়ির চিকিৎসার জন্য আলমারিতে রাখা নগদ ৫ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা ও ৩ টি মোবাইল নিয়ে যায়। 

সাবেক এই অধ্যক্ষের ছোট ছেলের স্ত্রী সাদিয়া আফরোজ বিনা বলেন, ওরা আমাদের বাচ্চাদের গলায় ছুরি ধরে আর মারধর করার চেষ্টা করে। আমরা অনেক কান্নাকাটি করি। আমাদের শাশুড়ি খালেদা জাহিদ খুব অসুস্থ তাকেও ওরা জিম্মি করে গলার চেইন খুলে নেয়। 

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) চাইলাউ মারমা বলেন, ডাকাতির ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ভুক্তভোগী পরিবার লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরে, আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর