Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:০২

নির্মাণকাজে শুভঙ্করের ফাঁকি

দুর্নীতিবাজদের নিয়ন্ত্রণ করুন

নির্মাণকাজে শুভঙ্করের ফাঁকি

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদ ধসে কয়েক শিশু আহত হয়েছে। এর আগে বরগুনায় ছাদ ধসে এক শিশুর মৃত্যু ঘটেছে। স্কুল-কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণে সর্বোচ্চ মানই নিশ্চিত করার কথা। এগুলোর নির্মাণকাজ তদারকির জন্য প্রকৌশলীসহ বিপুলসংখ্যক কর্মকর্তাও রয়েছেন। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং প্রকৌশলীরা ভবন নির্মাণে যথাযথ মান নিশ্চিত করার বদলে নিজেদের পকেট ভরার কাজে বেশি মনোযোগ দেন এটি একটি ওপেন সিক্রেট। দেশের যে কোনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দিকে তাকালেই স্পষ্ট হবে ভবন নির্মাণের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থের অর্ধেকের বেশিই আত্মসাৎ হয়েছে। চোরের দল চাটার দলের কারণে বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণের ছয় মাস না যেতেই তাতে ফাটল ধরে। শিক্ষার্থীদের জীবন হুমকির সম্মুখীন হয়। দেশের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত খাতের একটি শিক্ষা খাত। শিক্ষা খাতে সরকার হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয় করলেও তার বড় অংশ অপচয় হয় দুর্নীতির কারণে। এ অপচয় বন্ধ করা সরকারের কর্তব্য বলে বিবেচিত হওয়া উচিত। শিক্ষা খাতের চোর-ছ্যাঁচোড়দের দৌরাত্ম্য বন্ধই শুধু নয়, সরকারি তত্ত্বাবধানে গত তিন দশকে যেসব বিদ্যালয় ভবন নির্মিত হয়েছে সেগুলোর হালহকিকত সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হওয়া উচিত। নির্মাণকাজে কারচুপির জন্য দায়ী ঠিকাদার থেকে শুরু করে তদারকির কাজে নিয়োজিত সবার দায় নির্ধারণ করে তাদেরও জবাবদিহির আওতায় আনা উচিত। শুধু সরকারি অর্থে নির্মিত বিদ্যালয় নয়, যেখানেই সরকারি নির্মাণকাজ সেখানেই জবাবদিহি নিশ্চিত করার ব্যবস্থা থাকতে হবে। তাহলে রাস্তা নির্মাণের এক সপ্তাহ না যেতেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ায় বিড়ম্বনায় ভুগতে হবে না। হাওর এলাকার বাঁধ ভেঙে ফসল নষ্ট হবে না, দেখা দেবে না জাতীয় বিপর্যয়। বর্তমান সরকারের আমলে সরকারি কর্মচারীদের বেতন কয়েক গুণ বেড়েছে। সরকারি বেতনে স্বচ্ছন্দে জীবনযাপনের সুযোগ সৃষ্টি হওয়া সত্ত্বেও দেশ ও জনগণের প্রতি দায়বোধের মনোভাব সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে বিরল। তাদের সামাল না দিতে পারলে কোনো ক্ষেত্রেই ভালো কিছু অর্জন সম্ভব হবে না।

 


আপনার মন্তব্য