শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৩৯

রোজার পণ্যবাজার

মূল্যবৃদ্ধির হোতাদের ঠেকাতে হবে

রোজার মাসে কালোবাজারি মুনাফাখোরি ও মজুদদাররা যাতে তৎপর হয়ে উঠতে না পারে তা নিশ্চিত করতে সরকারের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে গোয়েন্দা সংস্থাসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বাজার মনিটরিং করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রোজায় ব্যবহৃত হয় এমনসব নিত্যপণ্যের মজুদ পর্যাপ্ত রয়েছে। বিশেষত ভোজ্যতেল, ছোলা, চিনি, পিয়াজ ইত্যাদি পণ্যের মজুদ চাহিদার চেয়ে বেশি রয়েছে। কেউ এসব পণ্যের দাম বাড়িয়ে রোজাদারদের দুর্ভোগে ফেলার চেষ্টা করলে তাদের কঠোরভাবে দমন করা হবে। রোজার মাসে নিত্যপণ্যের দাম অন্য সময়ের চেয়ে বেশি থাকা আমাদের ঐতিহ্যের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত এক দশকে রোজার বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি পণ্যের মজুদ গড়ে তুললেও পরিস্থিতি যে শতভাগ নিয়ন্ত্রণে ছিল তা বলার অবকাশ নেই। বিশেষত চিনির বাজারে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিতে চিনি পরিশোধনকারীদের কারসাজি ছিল লজ্জাজনক ঘটনা। ব্যবসায়ীদের একাংশের মানবিক মূল্যবোধ নিয়ে প্রশ্ন সৃষ্টি করেছে রোজার সময় নানা কৌশলে মূল্যবৃদ্ধির পাঁয়তারা। এবার যাতে কারসাজির অপনায়করা থাবা বিস্তার করতে না পারে সে ব্যাপারে সরকারকে সতর্ক থাকতে হবে। গত কয়েক বছরের মতো চলতি বছরও রোজা আসছে গ্রীষ্মের দাবদাহকে সঙ্গী করে। গ্রীষ্মে সবজির বাজার থাকে এমনিতেই চড়া। মাছ-মুরগির দামও থাকে অন্য সময়ের চেয়ে বেশি। রোজার কারণে এসব পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রবণতা মানুষের কষ্ট বাড়াতে পারে; যা নিয়ন্ত্রণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ প্রশাসনকে কড়া নজর রাখতে হবে। বাজার নিয়ন্ত্রণে চাঁদাবাজি বন্ধে প্রশাসন উদ্যোগ নেবে- এমনটিও প্রত্যাশিত। কারণ প্রতিটি রোজার মাসে রাজনৈতিক টাউট, মস্তান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কিছু অসৎ সদস্য এবং পরিবহন শ্রমিক ও মালিক সমিতির চাঁদাবাজি তুঙ্গে ওঠে। তারা পণ্যবাহী যানবাহন থেকে যে চাঁদাবাজি করে তার খেসারত দিতে হয় সাধারণ ক্রেতাদের। আমরা আশা করব এ বছর এ লজ্জাজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না। মাহে রমজানে পণ্যমূল্য বৃদ্ধির প্রবণতা রোধের পাশাপাশি নকল-ভেজাল রোধে প্রশাসন সক্রিয় হবে- এমনটিও দেখতে চায় সাধারণ মানুষ। সিয়াম সাধনার রমজানকে কেউ যাতে বেপরোয়া মুনাফা অর্জনের মাস হিসেবে বেছে না নেয় সে ব্যাপারে প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে হবে। এটি তাদের কর্তব্য বলে বিবেচিত হওয়া উচিত।


আপনার মন্তব্য