শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:০২

৯৩তম অস্কার আসর

নোম্যাডল্যান্ড-এর বাজিমাত

নোম্যাডল্যান্ড-এর বাজিমাত

অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ৯৩তম অস্কারের পর্দা উন্মোচিত হলো। করোনাকালেই বাংলাদেশ সময় গতকাল ভোর ৬টায় একসঙ্গে চারটি ভেন্যু থেকে সরাসরি সম্প্রচার সমন্বয় করা হয়। এবার সেরা ছবি নির্বাচিত হয়েছে ‘নোম্যাডল্যান্ড’ আর সেরা পরিচালক হয়ে ইতিহাস গড়েছেন চীনা পরিচালক ক্লোয়ি ঝাও। সব নিয়ে বিস্তারিত লিখেছেন- পান্থ আফজাল

 

মহামারীর কারণে নানা পরিবর্তন

অস্কারে করোনা মহামারীর কারণে নানা পরিবর্তন আনা হয়। পুরস্কারের জন্য যে নিয়মগুলো ছিল সেগুলো একাডেমি অনেক সহজ করে দেয়। যেসব সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি সেগুলোও মনোনয়নের তালিকায় যুক্ত হয়। আর ওটিটি প্ল্যাটফরমের বিষয়বস্তুও জায়গা করে নেয় এবারের অস্কারে।

 

ইভেন্টের হোস্ট প্রিয়াঙ্কা-নিক

এ বছর ইভেন্টের হোস্ট হিসেবে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং নিক জোনাস গত ১৫ এপ্রিল অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের পুরস্কারের জন্য মনোনীতদের ঘোষণা দেন। এই দম্পতি একটি লাইভ স্ট্রিমে অ্যাওয়ার্ডের ২৩টি বিভাগের জন্য মনোনয়ন প্রকাশ করে।

 

করোনা পরিস্থিতিতেও মাস্কবিহীন আসর

অনুষ্ঠানে সরাসরি যারা এসেছেন, তাদের তিনবার কভিড টেস্ট করানো হয়। আর এই কঠিন সময়েও মাস্কের বিষয়ে ছাড় দেন অস্কারের প্রতিনিধিরা। ক্যামেরার সামনে তারকাদের মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা না রেখে বাকি সময় মাস্ক পরতে বলা হয়। মাত্র ১৭০ জন অতিথি দূরত্ব মেনে বসেন ইউনিয়ন স্টেশনে। ঢোকার পথে শরীরের তাপমাত্রা চেকও করতে হয়।

 

ভেন্যুতে ছিল নতুনত্ব

করোনার জেরে বহু কাটছাঁট করে ছোট্ট পরিসরেই আয়োজন করা হয় এবারের অনুষ্ঠান। নির্ধারিত সময়ের প্রায় দুই মাস পর অনুষ্ঠিত হয় অস্কার অনুষ্ঠান। তবে অস্কারের ভেন্যুতে ছিল নতুনত্ব। গতানুগতিক ডলবি থিয়েটারের পাশাপাশি ভেনু সাজানো হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ঐতিহ্যবাহী ইউনিয়ন স্টেশনে। আবার ব্রিটিশ তারকারা এ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন লন্ডনের ব্রিটিশ ফিল্ম ইনস্টিটিউটে বসে। ঘরে বসেও ভার্চুয়ালি বহু তারকা যোগ দেন এ অনুষ্ঠানে। ‘রেড কার্পেট’-এর আয়োজন করা হলেও বাদ পড়ে ‘আফটার পার্টি’।

 

নোম্যাডল্যান্ডের বিরল ইতিহাস সৃষ্টি

অস্কারের আসরে বাজিমাত করেছে ‘নোম্যাডল্যান্ড’। সেরা পরিচালক, সেরা ছবি এবং সেরা অভিনেত্রীর সর্বোচ্চ পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে ছবিটি। এটির গল্প ফার্ন নামের এক নারীকে ঘিরে। আমেরিকার মহামন্দার সময় সব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েন ষাটে পা দেওয়া ফার্ন। এরপর ছুটে যান পশ্চিমে। বেছে নেন যাযাবর জীবন।

 

দ্বিতীয় নারী নির্মাতা হিসেবে সেরা

অস্কারের ৯৩তম আসরে ‘নোম্যাডল্যান্ড’ ছবির নির্মাতা হিসেবে সেরা পরিচালক হয়ে ইতিহাস গড়েছেন চীনা পরিচালক ক্লোয়ি ঝাও। ফলে দ্বিতীয় নারী পরিচালক হিসেবে অস্কার অর্জন করেন তিনি। একই সঙ্গে ৯৩ বছরের ইতিহাসে প্রথম এশীয় বংশো™ভূত নারী হিসেবে এ সেরার খেতাব অর্জন করেন ঝাও।’ উচ্ছ্বসিত ক্লোয়ি বলেন, ‘আমি দুনিয়ার যেখানে যার সঙ্গেই মিশেছি, তাদের ভালো দিকটাই দেখেছি। আর তাই আমার এই পুরস্কারটা তাদের জন্য উৎসর্গ করছি।’

 

সেরা অভিনেতা ও অভিনেত্রী

‘দ্য ফাদার’ ছবিতে ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত বৃদ্ধের চরিত্রে অভিনয় করে সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কার পেয়েছেন অ্যান্থনি হপকিনস। একই সঙ্গে তিনি আবার অস্কারজয়ী সবচেয়ে বেশি বয়সী অভিনেতাও। অন্যদিকে ‘নোম্যাডল্যান্ড’ ছবিতে ফার্নের চরিত্রটাকে দুর্দান্তভাবে ফুটিয়ে তুলে সেরা অভিনেত্রীর অস্কার বাগিয়ে নিয়েছেন ফ্রান্সেস ম্যাকডোরম্যান্ড। ওয়ার্নার ব্রাদার্সের ‘জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়াহ’ সিনেমাটির প্রথম বড় অর্জন হিসেবে সেরা  সহঅভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন  ড্যানিয়েল কালুইয়া।  আর  সেরা সহঅভিনেত্রী হয়েছেন কোরিয়ান অভিনেত্রী ইউহ-জুং ইয়ান (মিনারি)। কোরিয়ান অভিনেতা ও অভিনেত্রীদের মধ্যে ইতিহাসে ইউহ-জুং ইয়ানই প্রথম ব্যক্তি যিনি এই সম্মাননা পান। 

 

সবচেয়ে বেশি বয়সী অস্কারজয়ী নারী

এই আসরে পোশাক পরিকল্পনার জন্য অস্কার জিতে ইতিহাস গড়েছেন ৮৯ বছর বয়সী অ্যান   রথ। তিনিই এখন সবচেয়ে বেশি বয়সী অস্কারজয়ী নারী।

 

বিশেষভাবে সম্মানিত ইরফান খান-শৌখিনী ভানু আথাইয়া

অস্কারের ‘ইন মেমোরিয়াম’ বিভাগে স্মরণ করা হয় প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খানকে। শুধু ইরফান নন, তালিকায় ছিলেন ভারতের প্রথম অস্কারজয়ী শৌখিনী (ফ্যাশন ডিজাইনার) ভানু আথাইয়াও। বিশ্বখ্যাত প্রয়াত শিল্পীদের সম্মান দেওয়া হয় একাডেমি অব মোশন পিকচার্স অ্যান্ড সায়েন্সেসের ‘ইন মেমোরিয়াম’ বিভাগে। এবারে নাম উঠেছে এই দুই ভারতীয়র।

 

কিছু আবেগঘন মুহূর্ত...

‘প্রমিজিং ইয়ং উইম্যান’ এর জন্য সেরা চিত্রনাট্য (মৌলিক) জয়ী এমারেল্ড ফেনেল ট্রফি পাওয়ার পর আবেগতাড়িত হয়ে বলেন, ‘ট্রফিটা বড্ড শীতল আর ভারী ঠেকছে। আর আমি কিন্তু কেঁদে ফেলব না, কারণ এটা ঠিক ইংরেজদের মতো আচরণ হবে না।’ অন্যদিকে সেরা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রের পুরস্কার হাতে নেওয়ার সময় সবাইকে আরেক দফা আবেগে ভাসিয়েছেন ডেনমার্কের পরিচালক থমাস ভিনটারবার্গ। জানালেন, যে ছবির জন্য অস্কার পেলেন, সেটার শুটিং শুরুর চার দিনের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় তার কিশোরী কন্যাসন্তান মারা যায়। কষ্ট বুকে চেপে ঠিক করেন মেয়ের স্মৃতি ধরে রাখতেই এ ফিল্মের কাজ শেষ করবেন। তাই জীবনের জয়গানের থিম নিয়ে বানানো ফিল্মে মেয়ের নাম ‘আইডা’ জুড়ে দেন তিনি।

 

অস্কার হাতছাড়া প্রিয়াঙ্কার ছবির!

গতকাল ভোরবেলা টিভির পর্দায় চোখ রেখেছিল ভারতীয় সিনেপ্রেমীরা। এ বছর ৯৩তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ডের মঞ্চে ভারতীয়দের প্রত্যাশা ছিল ‘দ্য হোয়াইট টাইগার’-কে ঘিরে। রামিন বাহারানির এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আদর্শ গৌরব, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, রাজকুমার রাও। তবে এই বিভাগে প্রত্যাশা মিলিয়ে ফ্রোরিয়ান জেল্লের-এর ‘দ্য ফাদার’-এর হাতে উঠল অস্কারের সোনালি ট্রফি। অস্কার হাতছাড়া প্রিয়াঙ্কার! তবে অস্কারের রেড কার্পেটে প্রিয়াঙ্কার দেখা না মিললেও নির্মাতা রামিন বাহারানি কিন্তু ঠিকই হাজির ছিলেন।

 

একটানা দুবার অস্কার সেরা নেটফ্লিক্স

৯৩তম অস্কার পুরস্কারের মঞ্চে বড় জয় ওটিটি প্ল্যাটফরম নেটফ্লিক্সের। পরপর দুই বছর সেরা তথ্যচিত্র (ফিচার) বিভাগে শ্রেষ্ঠত্বের পুরস্কার পায় তাদের ছবি। দ্য একাডেমির তরফে সেরা তথ্যচিত্র ফিচার নির্বাচিত হয় ‘মাই অক্টোপাস টিচার’।

 

লাল গালিচায় দ্যুতি ছড়ালেন যারা

লাল-হলুদ থেকে রুপালি কিংবা কালো অস্কারের লাল গালিচায় হরেক রঙা গাউনে ঝলমল করে নিজেদের দ্রুতি ছড়িয়েছেন হলিউড নায়িকারা। পিছিয়ে থাকেননি অভিনেতারাও। এবারের ৯৩তম অস্কার আসরে লাল গালিচায় দ্রুতি ছড়ানো তারকাদের মধ্যে রয়েছেন ক্যারে মুল্লিগান, ক্লোয়ি ঝাও, জোশুয়া জেমস রিচার্ডস, আমান্ডা সেফ্রায়েড, সোফিয়া নাহিল অ্যালিসন, মিশেল কুট্টোলেনক, জেনডায়া, ড্যানিয়েল কালুইয়া, অ্যাম্যান্ড সেফ্রাইড, জোলে ম্যাকমারবা, মার্গট রবি, ভেনেসা কিরবি, ব্র্যাড পিট, রিজ আহমেদ ও তার স্ত্রী ফাতিমা ফারহিন মির্জা, রেজিনা কিং প্রমুখ।


এক নজরে

♦ সেরা চলচ্চিত্র : নোম্যাডল্যান্ড

♦ সেরা অভিনেতা : অ্যান্থনি হপকিনস

♦ সেরা অভিনেত্রী : ফ্রান্সেস ম্যাকডোরম্যান্ড

♦ সেরা পরিচালক : ক্লোয়ি ঝাও

♦ সেরা সহঅভিনেতা : ড্যানিয়েল কালুইয়া

♦ সেরা সহঅভিনেত্রী : ইউহ-জুং ইয়ানড় (মিনারি)

♦ সেরা চিত্রনাট্য (মৌলিক) : প্রমিজিং ইয়ং উইম্যান

♦ সেরা চিত্রনাট্য (অ্যাডাপটেড) : দ্য ফাদার

♦ সেরা আন্তর্জাতিক কাহিনিচিত্র : অ্যানাদার রাউন্ড

♦ সেরা অ্যানিমেটেড ছবি : সোল

♦ সেরা পোশাক পরিকল্পনা : অ্যান রথ

♦ সেরা সম্পাদনা : সাউন্ড অব মেটাল

♦ সেরা রূপ ও চুলসজ্জা : মা রেইনিস ব্ল্যাক বটম

♦ সেরা আবহসংগীত : সোল

♦ সেরা মৌলিক গান : ফাইট ফর ইউ (গ্যাব্রিয়েলা উইলসন-এইচইআর, জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়া)

♦ সেরা শিল্প নির্দেশনা : ম্যাঙ্ক

♦ সেরা শব্দ সম্পাদনা ও মিশ্রণ : সাউন্ড অব মেটাল

♦ সেরা ভিজ্যুয়াল ইফেক্টস : টেনেট

♦ সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র : টু ডিসট্যান্ট স্ট্রেঞ্জারস

♦ সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্যচিত্র : কোলেট

♦ সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য অ্যানিমেটেড ছবি : ইফ অ্যানিথিং হ্যাপেনস আই লাভ ইউ

♦ সেরা সিনেমাটোগ্রাফি : ম্যাঙ্ক