শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ ২২:০৮

'আমরা যতটা দুঃখ পেয়েছি, শত্রুরা ততটাই খুশি হয়েছে'

অনলাইন ডেস্ক

'আমরা যতটা দুঃখ পেয়েছি, শত্রুরা ততটাই খুশি হয়েছে'
ফাইল ছবি

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, কাসেম সোলাইমানিকে হত্যায় আমরা যতটা দুঃখিত হয়েছি, ইউক্রেনের বিমান ধ্বংসে শত্রুরা ততটাই খুশি হয়েছে। তারা আমাদের সৈন্যদের নিয়ে প্রশ্ন তোলার সুযোগ পেয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলোর সমালোচনা করে তিনি শুক্রবার তেহরানের মোসালা মসজিদে দেয়া ভাষণে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান। আট বছরে এই প্রথম জুমার নামাজ পড়ালেন তিনি। খবর বিবিসি বাংলার।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ইউক্রেনের বিমান ভূপাতিত হওয়াকে ব্যবহার করে শত্রুরা ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পসের (আইআরজিসি) কুদস ফোর্সের প্রধানকে হত্যার বিষয়টি ঢাকতে চাচ্ছে।

ইরাকের বাগদাদ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের কাছে ৩ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলায় আইআরজিসির কুদস ফোর্সের প্রধান এবং ইরাকি মিলিশিয়া কমান্ডার আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ বেশ কয়েকজন নিহত হন।

এরপর পেন্টাগন জানায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে এই হামলা চালানো হয়েছে। অন্যদিকে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনেয়ি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য কঠোর প্রতিশোধ অপেক্ষা করছে।

এর জবাবে ৮ জানুয়ারি দুটি মার্কিন ঘাঁটিতে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে ৮০ জন নিহত এবং ২০০ জন আহত হন বলে জানায় ইরানি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন। তবে ট্রাম্প জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে বলেন, ইরানের হামলায় কেউ হতাহত হননি।

কিন্তু দেশটির সেন্ট্রাল কমান্ডের মুখপাত্র ক্যাপ্টেন বিল উরবান ১৬ জানুয়ারি এক বিবৃতিতে জানান, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কোনও মার্কিন সৈন্য নিহত হননি। তবে ১১ জন আহত হয়েছেন। তারা এখন চিকিৎসাধীন আছেন।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য