Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ মে, ২০১৯ ১১:৩৪
আপডেট : ৫ মে, ২০১৯ ১১:৩৫

২০ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠাল ভারত

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

২০ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠাল ভারত

অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক ২০ বাংলাদেশি নাগরিককে দেশে ফেরত পাঠাল ভারতের আসাম রাজ্য সরকার।

শনিবার দক্ষিণ আসামের করিমগঞ্জ জেলার সুতারকান্দি (ভারত)-শেওলা (বাংলাদেশ) সীমান্ত চেক পোস্ট দিয়ে আইনি প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়েই তাদেরকে ফেরত পাঠানো হয়। প্রত্যপর্ণের সময় বিএসএফ, বিজিবি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আসাম রাজ্য সরকার, আসাম পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

করিমগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার মানবেন্দ্র দেব রায় বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন ‘ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ২০১৪-২০১৮ সাল পর্যন্ত এই ২০ জন বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছিল। এদের বিরুদ্ধে ভারতীয় পাসপোর্ট আইন ও ফরেনারস অ্যাক্ট অনুযায়ী মামলাও দায়ের করা হয়। এদের মধ্যে ৬ জন হিন্দু এবং ১৪ জন মুসলিম নাগরিক। তাদেরকে দুইটি ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হয়েছিল।’ 

ওই পুলিশ কর্মকর্তার দাবি, জেরায় এই বাংলাদেশিরা স্বীকার করেন যে কাজের খোঁজে ও আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করার লক্ষ্যেই তারা অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করে।  

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দুপুর দেড়টার দিকে তাদেরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়। এদের মধ্যে ১৯ জনকে দক্ষিণ আসামের শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে আনা হয়েছিল এবং একজন নারীকে পশ্চিম আসামের কোকরাঝাড় কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে আনা হয়।

চলতি বছরে এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো আটক বাংলাদেশি নাগরিকদের ফেরত পাঠানো হল। এর আগে গত ১৯ জানুয়ারি ২১ জন বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠায় ভারত।

বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো নাগরিকরা হলেন, সুজিত চন্দ্র দাস, ইকবাল হোসেন তালুকদার, মুহাম্মদ ইসহাক আলি, মোহাম্মদ আজিম উদ্দিন, আহমেদ খান, সমীর আহমেদ, আবদুল গফুর (প্রত্যেকেই সিলেটের বাসিন্দা), রবীন্দ্র দাস, দ্বিজেন্দ্র চন্দ্র দাস, শাহ আলি মিয়া, মোহাম্মদ ইব্রাহিম তালুকদার, ফারুক মিশ্র, সৈয়দ আল আমিন, রবিউল সরদার, পরিমল জলদাস (প্রত্যেকেই কিশোরগঞ্জের) এবং আলো রানি দাস।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য