শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ মার্চ, ২০২১ ১৪:১৫
আপডেট : ১১ মার্চ, ২০২১ ১৮:৫১
প্রিন্ট করুন printer

ভদ্র সমাজ বলে আর কিছু রইলো না ছিঃ...

অনলাইন ডেস্ক

ভদ্র সমাজ বলে আর কিছু রইলো না ছিঃ...
কণ্ঠশিল্পী ইমন চক্রবর্তী

নন্দীগ্রামে এক মন্দির গিয়ে পায়ে মাথায়, কপালে এবং পায়ে চোট পেয়ে আহত হয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। তাকে গ্রিন করিডর করে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে হেঁটে যাওয়ার মতো অবস্থায় ছিলেন না মমতা, তাই তাকে স্ট্রেচারে করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, মমতার জন্য এসএসকেএম হাসপাতালে পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এক্স-রে করার পর তার চোট গুরুতর হলে রাতেই পায়ে প্লাস্টার করা হবে। এমনটা হলে বেশ কয়েক দিন হাসপাতালে থাকতে হতে পারে তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রীকে। 

এ ঘটনায় জেলা প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিন্দার ঝড় বইছে। এই হামলায় ক্ষেপেছেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া কণ্ঠশিল্পী ইমন চক্রবর্তী। তিনি বুধবার রাতে লিখেছেন, যদি সত্যিও কেউ আঘাত করে থাকেন, তাহলে সেটা চরম নোংরামি ছাড়া আর কিছু না। তিনি একজন নারী। আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। আমি একদম নির্দলীয় জায়গা থেকে বললাম। ঝাপিয়ে পড়ে ভুলভাল লিখবেন না। আর হ্যাঁ, উনার পায়ে ব্যথার ছবি নিয়ে হাসাহাসিটাও অসহ্য লাগছে। ভদ্র সমাজ বলে আর কিছু রইলো না ছিঃ...।

উল্লেখ্য, এর আগে, এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে টুইট করেছেন আম আদমি পার্টির নেতা ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, মমতা দিদির ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে বিচার করতে হবে। আমি তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করি।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক

এই বিভাগের আরও খবর