শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ মার্চ, ২০২১ ২০:২৭
প্রিন্ট করুন printer

বিজেপি হটাও, দেশ বাঁচাও: মমতা ব্যানার্জি

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

বিজেপি হটাও, দেশ বাঁচাও: মমতা ব্যানার্জি
Google News

সামনেই পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার নির্বাচন। আর তার আগেই প্রধান বিরোধী দল বিজেপিকে তীব্র নিশানা করলেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। তার অভিযোগ ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরেন্দ্র মোদি একেবারেই অযোগ্য, দেশ চালানোর কোন ক্ষমতাই নেই।  

সোমবার পুরুলিয়া জেলার বাগমুন্ডিতে এক নির্বাচনী প্রচারণায় উপস্থিত হয়ে মমতা এসব কথা বলেন। নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করে মমতা বলেন, ‘ওদের (বিজেপি) প্রধানমন্ত্রী গালাগালি দেওয়া ছায়া আর কোন কাজ করতে পারে কি? ওদের প্রধানমন্ত্রী দেশ চালাতে পারে না। সম্পূর্ণ অযোগ্য। কেন্দ্রে একটা স্বৈরাচারী সরকার চলছে। কাউকে কথা বলতে দেয় না, কোনো গণতন্ত্র নেই, মানুষের বিচার নেই। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের দমিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। ওরা ভাবছে যে বিজেপি ছাড়া ভারতে আর কেউ থাকবে না। কিন্তু এর বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই চলবে। আমাদের দাবি হচ্ছে বিজেপি হটাও, দেশ বাঁচাও। আর এই বাংলা থেকেই বিজেপি হটাও এর ডাক দিচ্ছি।’   
সিপিএম, কংগ্রেস এবং বিজেপিকে জগাই-মাধাই-গদাই বলে কটাক্ষ করে মমতা বলেন ‘এরা হলো তিন ভাই। বাংলায় এদের কোন স্থান নাই। এদেরকে একটি ভোটও দেবেন না। আর বিজেপি থেকে সাবধান। ওরা হয় মারবে, হত্যা করবে, কুৎসা করবে, না হয় বাইরে থেকে লোক আনিয়ে ভোট লুট করবে।’ 
যারা অভিমান করে বসে আছে তাদের বাইরে বেরিয়ে এসে লড়াই করার আহ্বান জানিয়ে মমতা বলেন, ‘আমি যদি ভাঙ্গা পায়ে লড়তে যেতে পারি.. আমার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে, হাত দুটো ভেঙে দিয়েছে তার পরেও যদি লড়তে যেতে পারি.. তবে তোমরা কেন লড়বে না। যারা এখনো অভিমান করে বসে আছ, বেরিয়ে আসো। যুদ্ধের সময় অভিমান করে বসে থাকতে নেই। আমরা লড়াই করব এবং বিজেপিকে তার যোগ্য জবাব দেবো।’ 
খেলা হবে স্লোগান তুলে তিনি বলেন ‘খেলা হবে, দেখা হবে, যেতে হবে। কয়েকটা দিন অপেক্ষা করুন, আমার দুই পা ঠিকই থাকবে। কিন্তু আমি দেখব আপনাদের (বিজেপি) পা গুলো ঠিক মত বাংলার মাটিতে চলছে কিনা।’ 
বাঘমুন্ডির পাশাপাশি বলরামপুরেও আরেকটি নির্বাচনী জনসভায় উপস্থিত ছিলেন মমতা। মমতার হুঁশিয়ারি ‘যতদিন আমার গলার শ্বাস আছে, আমার কন্ঠকে স্তব্ধ করার দু:সাহস কেউ যেন না দেখায়। তোমাদের বিরুদ্ধে আমাদের এই লড়াই চলছে, চলবে।  

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর