শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৩

সিপা চুক্তি চায় ভারত

প্রস্তাব নিয়ে ঢাকায় আসছেন সুরেশ প্রভু

রুকনুজ্জামান অঞ্জন

সিপা চুক্তি চায় ভারত

যুক্তরাষ্ট্রের টিকফার (ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কো-অপারেশন ফোরাম এগ্রিমেন্ট) আদলে বাংলাদেশের সঙ্গে অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব চুক্তি করতে চায় ভারত। প্রস্তাবিত চুক্তিটির নাম হবে ‘কমপ্রিহেনসিভ ইকোনমিক পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট (সিপা)’। আনুষ্ঠানিকভাবে এই চুক্তির প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করতে ঢাকায় আসছেন ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী সুরেশ প্রভু। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে তার বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে ২৪ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্রগুলো জানায়, দুই দেশের বাণিজ্যমন্ত্রী পর্যায়ের এই বৈঠকের আলোচনায় দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়ানোর বিষয়গুলোই সর্বোচ্চ গুরুত্ব পাবে। বাংলাদেশের সঙ্গে এ ধরনের অর্থনৈতিক চুক্তির বিষয়ে প্রথমবার গত ফেব্রুয়ারিতে ভারতের দিক থেকে প্রস্তাব আসে। ওই সময় ঢাকায় অনুষ্ঠিত বাণিজ্য সচিব পর্যায়ের বৈঠকে ‘সিপা’ চুক্তির প্রস্তাব দিলে বাংলাদেশ চুক্তির খসড়া চায়। এ বিষয়ে ওই সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (এফটিএ) শফিকুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানিয়েছিলেন, অর্থনৈতিক অংশীদারিত্বের বিষয়ে একটি চুক্তির কথা জানিয়েছে ভারত। আমরা এ বিষয়ে খসড়া চেয়েছি। খসড়া পাওয়ার পর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এখন সুরেশ প্রভু সেই চুক্তির বিষয়ে আলোচনা করতে ঢাকায় আসছেন—এমনটি জানিয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, জাপান ও কোরিয়ার সঙ্গে এ ধরনের চুক্তি রয়েছে ভারতের। আমরা ওই চুক্তিগুলো পর্যালোচনা করে দেখছি। প্রস্তাবিত চুক্তিতে পণ্য ও সেবা খাতে বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও দুই দেশের বিনিয়োগ বাড়ানোর বিষয়গুলো গুরুত্ব পেতে পারে। মন্ত্রী পর্যায়ের এই বৈঠকে ভারতের দিক থেকে বেনোপোল বন্দরে ট্রাক জট ছাড়াতে ‘ওয়ান টাইম পুস’ চালু করার প্রস্তাব থাকতে পারে। এ ছাড়া দুই দেশের সীমান্তে নির্মাণাধীন ছয়টি বর্ডার হাটের অগ্রগতি নিয়েও আলোচনা হবে। বাংলাদেশের দিক থেকে স্থলবন্দরগুলোর উন্নয়নে সমন্বয়ের মাধ্যমে প্রকল্প গ্রহণের তাগিদ দেওয়া হবে, যাতে দুই দেশের সীমান্ত বন্দরে একই ধরনের অবকাঠামো সুবিধা নিশ্চিত করা যায়। বিএসটিআই অনুমোদিত পণ্য ভারতের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক স্বীকৃতির বিষয়ে প্রস্তাব দেবে বাংলাদেশ। এ ছাড়া বাংলাদেশের পাট ও হাইড্রোজেন পার অক্সাইড জাতীয় পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে ভারত যে অ্যান্টি ডাম্পিং শুল্ক আরোপ করেছে তা প্রত্যাহারের বিষয়েও প্রস্তাব দেবে বাংলাদেশ। দশ সদস্যের প্রতিনিধি দল নিয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর ঢাকায় আসবেন সুরেশ প্রভু। পরদিন পদ্মায় বৈঠক সেরে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের নিজ এলাকা ভোলা সফরে যাওয়ারও কথা রয়েছে ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রীর।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর