শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৯ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ আগস্ট, ২০২০ ০০:০৪

ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে

আড়ত সরগরম বড় ইলিশে

প্রতিদিন ডেস্ক

আড়ত সরগরম বড় ইলিশে

বড় আকারের ইলিশে সরগরম দেশের নামকরা মাছের আড়তগুলো। দাম সহনীয় হওয়ায় খুশি ক্রেতারা। আবহাওয়া খারাপ থাকায় সামুদ্রিক ইলিশের সরবরাহ কিছুটা কম। তবে বুধবার থেকে সরবরাহ বাড়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের  পাঠানো তথ্য।

বরিশাল : আবহাওয়া খারাপ থাকায় কমেছে সামুদ্রিক মাছের সরবরাহ। এখন আসছে স্থানীয় নদ-নদীর ইলিশ। বাজারে আসা ইলিশের বেশিরভাগই আকারে বেশ বড়। কেজি আকারের এক কেজি ইলিশ দাম হাজার টাকায় কিনতে পারায় স্বস্তিতে ক্রেতারা। দাম আরও কমবে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। শ্রাবণ-ভাদ্র-আশ্বিন মাসে সবচেয়ে বেশি ইলিশ ধরা পড়ে। ইলিশ আড়তদার মো. নাসির উদ্দিন জানান, শনিবার বরিশাল মোকামে দেড় কেজি আকারের প্রতি মণ ইলিশ পাইকারি বিক্রি হয়েছে ৪০ হাজার টাকায়। এ ছাড়া ১ কেজি ২শ গ্রাম আকারের প্রতি মণ ৩৬ হাজার, কেজি আকারের প্রতি মণ ৩২ থেকে ৩৪ হাজার, রপ্তানিযোগ্য এলসি আকারের (৬০০ থেকে সাড়ে ৯০০ গ্রাম) প্রতি মণ ২৮ থেকে ৩০ হাজার এবং ৫০০ থেকে ৬০০ গ্রাম ওজনের ভ্যালকা আকারের প্রতি মণ ইলিশ বিক্রি হয়েছে ১৮ থেকে ২০ হাজার টাকায়। বরিশাল মৎস্য দফতরের কর্মকর্তা (ইলিশ) ড. বিমল চন্দ্র দাস বলেন, ইলিশের পেটে এখনো ডিম না আসায় তারা ঝাঁকে ঝাঁকে অভ্যন্তরীণ নদী ও সাগর মোহনায় আসতে শুরু করেনি। কিছু ইলিশ নদী ও মোহনায় ধরা পড়ছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে সাগর ও নদীতে ইলিশ আসবে। চাঁদপুর : চাঁদপুরের বড় স্টেশন মাছঘাটে ইলিশের ব্যাপক আমদানি শুরু হয়েছে। এজন্য চাঁদপুর মাছঘাটে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে পাইকারি, আড়তদার, খুচরা বিক্রেতা ও শ্রমিকদের মাঝে। আড়তদার মিজান পাটওয়ারী বলেন, গত সপ্তাহ থেকে যেসব ইলিশ আমদানি হচ্ছে এসব ইলিশের বেশিরভাগেরই আকার কেজি আকারের। বাজারে ২০০ থেকে ৩০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ প্রতি মণ ১০-১২ হাজার, ৫০০ থেকে ৬০০ গ্রামের ইলিশ প্রতি মণ ২৪-২৫ হাজার, এক কেজি আকারের ইলিশ প্রতি মণ ৩০-৩২ হাজার , ১ কেজি ৪০০ গ্রাম এবং দেড় কেজি ওজনের ইলিশ প্রতি মণ ৩৬-৪০ হাজার টাকা, ছোট আকারের ইলিশগুলো বেশিরভাগ চাঁদপুরের স্থানীয় জেলেরা পদ্ম-মেঘনা নদী থেকে আহরণ করে থাকে।

চট্টগ্রাম : নিষেধাজ্ঞা শেষে ফের মাছ ধরা শুরু হওয়ায় সাগর ও নদীতে ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ। ফলে বাজার সয়লাব ইলিশ মাছেই। একদিকে যেমন মাছের আকার তুলনামূলক বড়, অন্যদিকে সরবরাহ বেশি থাকায় দামও কিছুটা কম। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতির কারণে চট্টগ্রামের ফিসারিঘাটসহ বিভিন্ন স্থানে মাছ বিক্রি ১১ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে এবং ১২ আগস্ট থেকে আবারও পুরোদমেই বিক্রি শুরু হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ফিসারিঘাটের মাছ ব্যবসায়ী আবদুর রহমান বলেন, চলতি সপ্তাহে বাজারে ৪০০ গ্রাম থেকে শুরু করে দুই কেজি ওজনের প্রচুর ইলিশ এসেছে। দেড় থেকে দুই কেজি ওজনের ইলিশ ১১০০-১২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আর ৪০০ থেকে ৫০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৫০০-৫৫০ টাকা কেজি দরে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর