শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩৪

কমে আসছে সংক্রমণ হার

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ২ হাজার ৯৫৫, মৃত্যু ৭৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

কমে আসছে সংক্রমণ হার
Google News

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে চলমান লকডাউন শতভাগ কার্যকর না হলেও জনসমাগম সীমিত হওয়ায় কমে আসছে সংক্রমণ হার। গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় সংক্রমণ হার শনাক্ত হয়েছে ১০ দশমিক ৪৮ শতাংশ, যা ৩৮ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন। তবে গতকালও ৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৮ হাজার ২০৬টি নমুনা পরীক্ষায় ২ হাজার ৯৫৫ জনের দেহে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ সময় সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ৩৯২ জন। গতকাল পর্যন্ত দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭ লাখ ৫৪ হাজার ৬১৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১১ হাজার ৩০৫ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬ লাখ ৭২ হাজার ৩১৯ জন। এদিকে দেশে গত ১৪ এপ্রিল থেকে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেওয়া হয়েছে কঠোর হুঁশিয়ারি। তবে গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও ব্যক্তিগত গাড়ির কারণে রাজধানীতে প্রতিদিনই দেখা যাচ্ছে যানজট। হাটবাজারের কোথাও স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা যাচ্ছে না। প্রতিটি বাজারে মাস্ক ছাড়াই গাদাগাদি করে কেনাকাটা করছে মানুষ। তারপরও লকডাউনে বিভিন্ন অফিস বন্ধ ও চলাচল সীমিত হওয়ায় ১৭ এপ্রিল থেকে (২৫ এপ্রিল বাদে) টানা কমছে সংক্রমণ হার। তবে ধীরগতিতে সংক্রমণ হার কমা ও ভারতে ভাইরাসটির তান্ডবের কারণে সরকার আবারও লকডাউনের সীমা বাড়িয়ে গতকাল প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। জনস্বাস্থ্যবিদরা বলছেন, ১৪ দিনের লকডাউন কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করতে পারলে সংক্রমণ হার হয়তো ৫ শতাংশের নিচে নেমে আসত। পুরো ফেব্রুয়ারি মাসে সংক্রমণ হার ৪ শতাংশের নিচে ছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৭৭ জনের মধ্যে ৪৩ জন ছিলেন পুরুষ ও ৩৪ জন নারী। ৭৬ জন হাসপাতালে ও একজন বাড়িতে মারা গেছেন। বয়স বিবেচনায় মৃতদের মধ্যে ৫২ জন ষাটোর্ধ্ব, ১২ জন পঞ্চাশোর্ধ্ব, তিনজন চল্লিশোর্ধ্ব, আটজন ত্রিশোর্ধ্ব ও দুইজনের বয়স ছিল ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। এর মধ্যে ৪৬ জন ঢাকায়, নয়জন চট্টগ্রামে, পাঁচজন রাজশাহীতে, সাতজন খুলনায়, পাঁচজন বরিশালে, দুজন সিলেটে, দুজন ময়মনসিংহে ও একজন রংপুরে মারা গেছেন। 

এই বিভাগের আরও খবর